আনসার বাহিনীর সদস্যদের কল্যাণে ট্রাস্ট হচ্ছে

কলমের বার্তা / ১৭২ বার পড়া হয়েছে।
সময় কাল : শনিবার, ১১ জুন, ২০২২

স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী আসাদুজ্জামান খান বলেছেন, বর্তমান সরকার এর মধ্যে বাংলাদেশ আনসার ও গ্রাম প্রতিরক্ষা বাহিনীর সব সদস্যের কল্যাণের জন্য আনসার ওয়েলফেয়ার ট্রাস্ট গঠন করেছে। এ বাহিনীর জন্য ৪০টি অস্ত্রাগার নির্মাণ প্রকল্পেরও অনুমোদন দেওয়া হয়েছে। তিনি গতকাল সকালে গাজীপুরের সফিপুরে বাংলাদেশ আনসার ভিডিপি একাডেমিতে নবনিযুক্ত ব্যাটালিয়ন আনসার (২২তম ব্যাচ-পুরুষ) মৌলিক প্রশিক্ষণ সমাপনী কুচকাওয়াজ অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথির বক্তব্যে এ কথা বলেন।

কুচকাওয়াজের শুরুতেই স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী একটি সুসজ্জিত খোলা জিপে প্যারেড পরিদর্শন করেন। পরে প্রশিক্ষণার্থীরা ছয় সারিতে মার্চপাস্ট করে তাকে অভিবাদন জানান। অনুষ্ঠানে মন্ত্রী বলেন, একটি বিশেষায়িত গার্ড ব্যাটালিয়নসহ নতুন আনসার ব্যাটালিয়ন গঠন, আনসার ব্যাটালিয়নের তিনটি পদবির বেতন গ্রেডের ধাপ উন্নীত করা করা হয়েছে। সেগুলোর অবকাঠামোগত উন্নয়ন কার্যক্রম হাতে নেওয়া হয়েছে। এরই মধ্যে ১৫টি ব্যাটালিয়ন সদরে আধুনিক অবকাঠামো গড়ে মডেল ব্যাটালিয়নে রূপ  দেওয়া হয়েছে।

অবশিষ্ট ব্যাটালিয়নগুলোর উন্নয়ন প্রক্রিয়াধীন আছে। বিভিন্ন রেঞ্জ, জেলা-উপজেলায় মডেল  রেঞ্জ, জেলা ও উপজেলা অফিস নির্মাণের কার্যক্রমও চলমান রয়েছে। আনসার সদস্যদের উদ্দেশে মন্ত্রী বলেন, মুক্তিযুদ্ধের চেতনাকে ধারণ করে দেশপ্রেমে উদ্বুদ্ধ থেকে বাহিনীর সুনাম এবং ভাবমূর্তি অক্ষুণ্ন রাখতে নিজেদের ওপর অর্পিত দায়িত্ব ও কর্তব্য সঠিকভাবে পালন করে আপনারা দেশ এবং জাতির সার্বিক উন্নয়নে উজ্জ্বল দৃষ্টান্ত স্থাপন করতে সক্ষম হবেন। তিনি সীতাকুণ্ডের ঘটনা সম্পর্কে বলেন, চট্টগ্রামের সীতাকুণ্ডে অগ্নিকাণ্ডের ঘটনায় অনেক প্রাণহানি ঘটেছে, এটা কেন ঘটেছে, এতে কার গাফিলতি আছে সেটি বের করতে উচ্চ পর্যায়ের দুটি তদন্ত কমিটি গঠন করা হয়েছে। অগ্নিকাণ্ডের ঘটনায় মামলা হয়েছে।

তদন্ত কমিটির তদন্তে যারা দোষী সাব্যস্ত হবে, অবশ্যই তাদের শাস্তি হবে। তবে তদন্তের আগে কে দোষী, কে নির্দোষ- আমরা বলছি না। আমরা মনে করি, এটা তদন্তের পরই আমরা সবকিছু পাব। সেই অনুযায়ী বিচারকার্য চলবে। অনুষ্ঠানে স্বরাষ্ট্র মন্ত্রণালয়ের জননিরাপত্তা বিভাগের সিনিয়র সচিব আখতার হোসেন এবং বাংলাদেশ আনসার ও গ্রাম প্রতিরক্ষা বাহিনীর মহাপরিচালক মেজর জেনারেল মিজানুর রহমান শামীম বিশেষ অতিথি হিসেবে উপস্থিত ছিলেন। এ সময় বাহিনীর অতিরিক্ত মহাপরিচালক ব্রিগেডিয়ার জেনারেল খোন্দকার ফরিদ হাসান, আনসার ও ভিডিপি একাডেমির কমান্ড্যান্ট অতিরিক্ত মহাপরিচালক সামছুল আলম, উপমহাপরিচালক (প্রশাসন) কর্নেল  মোহাম্মদ রফিকুল ইসলাম, উপমহাপরিচালক (অপারেশনস) এ কে এম জিয়াউল আলম ও বাহিনীর অন্যান্য ঊর্ধ্বতন কর্মকর্তা ও কর্মচারীরা উপস্থিত ছিলেন।

116
Spread the love


আপনার মতামত লিখুন :

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

এই বিভাগের আরো খবর