শিরোনামঃ
আশা জাগাচ্ছে বায়ুবিদ্যুৎ ডিসেম্বরে ঘুরবে ট্রেনের চাকা মূল্যস্ফীতি হ্রাসে ব্যাংক থেকে ঋণ কমাতে চায় সরকার বদলে যাবে হাওরের কৃষি বাংলাদেশে নতুন জলবায়ু স্মার্ট প্রাণিসম্পদ প্রকল্প চালু যুক্তরাষ্ট্রের ‘তথ্য দেওয়ার জন্য বাংলাদেশ ব্যাংকে ৩ জন মুখপাত্র নিয়োগ দেওয়া হয়েছে’ অস্বস্তি কাটিয়ে যুক্তরাষ্ট্র-বাংলাদেশ সম্পর্কে নতুন মোড় এমপিদের শুল্কমুক্ত গাড়ি আমদানি সুবিধা উঠে যাচ্ছে ভূমি অধিগ্রহণ জটিলতা দূর ৫০০ একর খাসজমি বরাদ্দ স্বাধীনতাবিরোধীদের পদচিহ্নও থাকবে না: রাষ্ট্রপতি আজ জাতীয় এসএমই পণ্য মেলা উদ্বোধন করবেন প্রধানমন্ত্রী দশতলা বিল্ডিং এর ছাদ থেকে লাফ দিয়ে নারী পোশাক শ্রমিকের মৃত্যু বাগবাটি রাজিবপুর অটিস্টিক ও বুদ্ধি প্রতিবন্ধী স্কুলে হুইল চেয়ার বিতরণ সিরাজগঞ্জ পৌরকর্মচারী ইউনিয়নের দ্বি-বার্ষিক নির্বাচন অনুষ্ঠিত  কাজিপুর খাদ্য গুদামে অভ্যন্তরীণ বোরো -ধান চাউল সংগ্রহ এর উদ্বোধন আদিতমারীতে ধান-চাল ক্রয়ের আনুষ্ঠানিক উদ্বোধন ঠাকুরগাঁওয়ে শিশু নিবির হত্যা মামলায় গ্রেফতার আরেক শিশু বেনাপোল সীমান্তের চোরা পথে ভারতে যাবার সময় মিয়ানমার নাগরিকসহ আটক-৪ বিয়েতে রাজি না হওয়ায় আত্নহত্যা, প্রতিপক্ষকে ফাঁসাতে হত্যা মামলা সিরাজগঞ্জে সাংবিধানিক ও আইনগত অধিকার বিষয়ক কর্মশালা অনুষ্ঠিত

গোলাম কিবরিয়া খান কাজিপুর (সিরাজগঞ্জ) প্রতিনিধি

কাজিপুরের চরাঞ্চলে ভুট্টার বাম্পার ফলন

কলমের বার্তা / ৩৬২ বার পড়া হয়েছে।
সময় কাল : বৃহস্পতিবার, ২১ এপ্রিল, ২০২২

সিরাজগঞ্জের কাজিপুর উপজেলার চরাঞ্চলে গত কয়েক বছরের তুলনায় রবি মৌসুমে রেকর্ড পরিমাণ ৮হাজার ৭শত ৫০ হেক্টর জমিতে ভুট্টার বাম্পার ফলন হয়েছে। চলতি বাজারদর ভালো থাকায় কৃষকের স্বপ্ন রঙ্গিন হয়ে উঠেছে। ভুট্টা মায়াই ও শুকনো কাজে ব্যাস্ত সময় পার করলেও উৎপাদন সফলতা তাদের ক্লান্তি দূর করে দিয়েছে।

গবাদিপশু খাদ্য প্রস্তুতকারী প্রতিষ্ঠানগুলো কাঁচা ভুট্টা উচ্চদামে সংগ্ৰহ শুরু করায় একই জমিতে অতিরিক্ত আবাদ হিসেবে বোরো মৌসুমী ধান রোপনের সুযোগ পেয়েছে কিছু সংখ্যক কৃষক। মৌসুমের শুরুতেই স্থানীয় বাজারে ভুট্টার আদ্রর্তা ভেদে ১ হাজার ৫০ থেকে ১৪শ টাকা মনপ্রতি হারে বিক্রি হচ্ছে। যা অন্যান্য বছরের তুলনায় প্রায় দ্বিগুণ।

কৃষিপণ্য উৎপাদনে স্বয়ংসম্পূর্ণ কাজিপুর
উপজেলার ১২টি ইউনিয়নের মধ্যে ৬টি ইউনিয়ন যমুনা নদীর চরাঞ্চলে। বাকি ৬টির মধ্যে ৪টি ইউনিয়ন নদীতে আংশিক বিধ্বস্ত। বিস্তৃর্ণ চরাঞ্চলে যমুনা নদীর নাব্যতা হ্রাস পাওয়ায় জেগে উঠা ছোট ছোট অসংখ্য বালু চর, খাড়ী, কোলজুড়ে রবি ফসল চাষ করা যায় নির্ভয়ে। নদীর ধু-ধু বালু চরে যেখানে যে ফসল প্রযোজ্য তাই চাষাবাদ করে কৃষকরা। এ বছর রবি ফসলের মধ্যে ভুট্টার আধিক্য বেশি। সহজ চাষাবাদ পদ্ধতি ও উৎপাদন ব্যায় কম এবং অধিক লাভজনক হওয়ায় এই এলাাকায় ভুট্টা আবাদ দিন দিন জনপ্রিয় হয়ে উঠেছে।

উপজেলা কৃষি অফিস সূত্রে জানা যায়,
চলতি মৌসুমে ৩৮০০ জন ভুট্টা চাষিকে প্রনোদনার আওতায় বিঘা প্রতি সার, বীজ, প্রশিক্ষণ ও অন্যান্য উপকরণ প্রদান করা হয়েছে। ৮হাজার ৭শত ৫০ হেক্টর জমিতে ১৮ প্রকার জাতের হাইব্রিড ভুট্টা চাষাবাদ হয়েছে এবার। এরমধ্যে উল্লেখযোগ্য, এন এইচ-৭৭২০ জাতের ১৮০০ হেক্টর, মিরাকেল ১৭১০ হেক্টর, ডন১১ জাতের ৫১০ হেক্টর, সুপারশাইন ২৭৬০ জাতের ৭০০ হেক্টর, কাবেরি ৮৫০ হেক্টর, কনক-৫১ জাতের ৪৫০ হেক্টর, ৯০ এম গোল্ড ৪৫০ হেক্টর। কাজিপুরের মোট আবাদী জমির এক তৃতীয়াংশে ভুট্টা চাষ হওয়ায় ধানের পরেই প্রধান অর্থকরী ফসল হিসেবে ভুট্টা বিবেচিত হয়ে আসছে।

চরগিরিশ ইউনিয়নের রঘুনাথপুর গ্ৰামের চাষি আব্দুল খালেক ২০ বিঘা জমিতে ভুট্টা চাষ করেছেন। খরচ, পরিশ্রম ও ফলন বিবেচনায় অধিক লাভ আশা করছেন তিনি। চরাঞ্চলের নাটুয়ারপাড়া গ্ৰামের মতিয়ার রহমান গত মৌসুমের অভিজ্ঞতা কাজে লাগিয়ে ২৮বিঘা জমিতে ভুট্টা চাষ করেছেন, বাম্পার ফলন ঘরে তোলার দ্বারপ্রান্তে তিনি। মাইজবাড়ী ইউনিয়নের তরুন কৃষক সুমন ইসলাম স্থানীয় কৃষকদের সংগঠিত করে ১০০ বিঘার উপর জমিতে সম্মিলিতভাবে ভুট্টা আবাদ করেছেন, ভালো দাম পেয়ে স্বাবলম্বী হওয়ার স্বপ্ন দেখছেন।

উপজেলা কৃষি কর্মকর্তা কৃষিবিদ রেজাউল করিম জানান, চরাঞ্চলের পলি মিশ্রিত বালু মাটি ভুট্টা চাষের জন্য আদর্শ। প্রদর্শনী, সরকারি প্রণোদনা, ভর্তুকি, প্রযুক্তি এবং প্রশিক্ষণসহ যাবতীয় সুযোগ সুবিধা যথাসময়ে প্রদান করার পাশাপাশি উপ-সহকারী কৃষি কর্মকর্তারা সর্বোচ্চ ফলনের জন্য সার্বক্ষণিক পরিদর্শন ও পরামর্শ প্রদান করে আসছেন। ভুট্টা উৎপাদনের ক্ষেত্রে কাজিপুর দৃষ্টান্ত হতে পারে বলে তিনি আশাবাদ ব্যক্ত করেন।

151


আপনার মতামত লিখুন :

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

এই বিভাগের আরো খবর