শুক্রবার, ১৪ মে ২০২১, ০১:৪৫ অপরাহ্ন

কোনাবাড়ীতে ধর্ষণ চেষ্টার অভিযোগে গার্মেন্টস কর্মকতা আটক

গাজীপুর প্রতিনিধি :
  • সময় কাল : সোমবার, ৮ ফেব্রুয়ারী, ২০২১
  • ১৩৭ বার পড়া হয়েছে
গাজীপুরের কোনাবাড়ীতে ধর্ষণ চেষ্টার অভিযোগে হেলাল উদ্দিন (৩৭) নামে এক গার্মেন্টস কর্মকতাকে আটক করেছে পুলিশ। রোববার (৭ ফেব্রুয়ারি) ভিকটিমের অভিযোগের ভিত্তিতে রাত  সাড়ে ৮ টা সময় আমান উল্লাহ চেয়ারম্যানের বাসা থেকে তাকে আটক করা হয়। আটককৃত হেলাল উদ্দিন ভোলা জেলার বোরহানউদ্দিন থানার বড় মানিকা গ্রামের মুফাজ্জল হোসেনের ছেলে। সে স্থানীয় তুসকা গার্মেন্টস এর ওয়াশিং ইউনিটের দ্বিতীয় তলায় ফ্লোর ইনচার্জ হিসেবে কর্মরত ছিলেন।
কোনাবাড়ী থানার অভিযোগ সূত্রে জানা যায় ভিকটিম একই ইউনিটে গত আড়াই বছর পূর্বে অপারেটর হিসেবে যোগদান করেন। চাকুরী করাকালীন সময়ে বিভিন্ন সময় উত্ত্যক্ত করে আসছিলো ওই কর্মকর্তা । কিন্তু ভিকটিম তার কুপ্রস্তাবকে প্রত্যাখ্যান করলেও বিভিন্ন কৌশল অবলম্বন করেন ওই কর্মকর্তা। রোববার (৭ ফেব্রুয়ারি)   সকাল সাড়ে ৯ টা সময় ওই কর্মকর্তা  ভিকটিমের মোবাইলে বারবার ফোন করে তার বাসার সামনে আসতে বলে।
তখন ভিকটিম তার চাকুরী চলে যাওয়ার ভয়ে সকাল ১০ টা সময় তার বাসার সামনে  যায়। ভিকটিম তার বাসার সামনে গেলে বহুতল ভবনের দ্বিতীয় তলায় নিয়ে যায় এবং কুপ্রস্তাব দেয় গার্মেন্টস কর্মকর্তা  ।
তার প্রস্তাবকে আবারো প্রত্যাখ্যান করে ভিকটিম। পরে ওই কর্মকর্তা জোর করে তাকে ধর্ষণের চেষ্টা করলে ভিকটিমের চিৎকার করলে দৌড়ে পালিয়ে যায় । এঘটনায় ভিকটিম  বাদী হয়ে কোনাবাড়ী থানায় একটি অভিযোগ দায়ের করেন।
অভিযোগের বিষয়টি নিশ্চিত করেছেন
কোনাবাড়ী থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) আবু সিদ্দিক। তিনি বলেন,ধর্ষণ চেষ্টার অভিযোগে
হেলাল উদ্দিন নামে এক গার্মেন্টস কর্মকর্তাকে
আটক করা হয়েছে। তার বিরুদ্ধে আইনানুগ ব্যবস্থা প্রক্রিয়াধীন।
Spread the love
  •  
  •  
  •  

নিউজটি শেয়ার করুন

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

এ বিভাগের আরও খবর
themesba-lates1749691102