মঙ্গলবার, ১৯ অক্টোবর ২০২১, ০৯:৫৫ অপরাহ্ন
শিরোনাম :
চরএলাহী ইউনিয়ন শাখা জাতীয়তাবাদী প্রবাসী কল্যাণ পরিষদের কমিটির অনুমোদন সিরাজগঞ্জে বঙ্গবন্ধুর জন্মশতবা‌র্ষিকী উপলক্ষে- শিশু-কিশোরদের চিত্রাংকন প্রতিযোগিতা ও পুরস্কার বিতরণ অনু‌ষ্ঠিত। সাইয়েদা ইসলাম সুম্মা এক ঘন্টার মেয়র হলেন! সিরাজগঞ্জে রিভালবার ও গুলিসহ ডাকাত চক্রের ৬ সদস্য গ্রেফতার কালিয়াকৈর পৌরসভা থেকে ৭২ ঘন্টার মধ্যে বিলবোর্ড-ব্যানার অপসারণের নির্দেশ কোনাবাড়ীতে আগুনে পুড়লো হায়দার আলীর ঝুট গুদাম  ঘুষ-দুর্নীতি ও নানা অপকর্মে আলোচিত সেই পিআইও নুরুন্নবীর বিরুদ্ধে ফের বিভাগীয় মামলা! স্পেনে শেখ রাসেলের জম্মদিন ও শেখ রাসেল দিবস উদযাপন কোনাবাড়ীতে শেখ রাসেলের জন্মদিন পালন  অভয়নগরে শেখ রাসেল দিবস উদযাপন

গলাচিপায় শীত জনিত কারনে আক্রান্ত হচ্ছে শিশু ও বৃদ্ধার।

সঞ্জিব দাস, গলাচিপা (পটুয়াখালী) প্রতিনিধি:
  • সময় কাল : শনিবার, ৯ জানুয়ারী, ২০২১
  • ২৩ বার পড়া হয়েছে

পটুয়াখালীর গলাচিপায় শীতের প্রকোপ যত বাড়ছে শীত জনিত রোগে আক্রান্ত হচ্ছেন শিশু ও বৃদ্ধরা। এ কারনে শীত জনিত নিউমোনিয়া, ডায়রিয়া ও শ্বাস কষ্ট জনিত রোগ প্রতিরোধে সর্তক থাকার প্রতি গুরুত্ব দিচ্ছেন চিকিৎসকরা। তাদের আশংকা শৈত্যপ্রবাহ বাড়লেই বাড়বে ডায়রিয়া ও শ্বাস কষ্ট সহ শীত জনিত রোগ। ঠান্ডার কারনেই হাসপাতালে শীত জনিত ডায়রিয়া আক্রান্ত ও শ্বাস কষ্ট জনিত রোগীর সংখ্যা বাড়ছে। এদের বেশীর ভাগই শিশু। ঠান্ডার কারনে বেশিরভাগই শিশু ও বৃদ্ধরা আক্রান্ত হয়ে হাসপাতালে ভর্তি হচ্ছেন। শনিবার গলাচিপা উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্স ও পরিবার পরিকল্পনা কর্মকর্তা ডাঃ মো. মনিরুল ইসলাম জানান, এক বছরে শীত জনিত রোগে শিশুরা ও বৃদ্ধারা নিউমোনিয়ায় আক্রান্ত হচ্ছেন। তাদেরকে হাসপাতালে চিকিৎসা দিয়ে সুস্থ করে বাড়িতে পাঠানো হচ্ছে। রোগী কহিনুর বেগম (৬৫) জানান, আমি এই শীতে শ^াস কষ্টে ভুগছিলাম হাসপাতালে এসে ভর্তি হলে এখন সুস্থ বুঝি কালকে চলে যাব। এক শিশু রোগীর মা জান্নাতুল বেগম জানান, আমার ৫ মাসের একটি পূত্র সন্তান ঠান্ডা জনিত কারনে নিমনিয়া হয়েছিল। হাসপাতালে ৪ দিন চিকিৎসা নিয়ে সুস্থ বুঝে কাল চলে যাব। এ ব্যাপারে অন্যান্য চিকিৎসকরা বলেন, গত এক মাসে গলাচিপা উপজেলা স্বাস্থ কমপ্লেক্সে ঠান্ডা জনিত কারনে ৬০ জন শিশু ও ২৫ জন বৃদ্ধ রোগে আক্রান্ত হয়েছেন। দূষিত পানি, দূষিত খাবার এবং পরিবেশের কারনে বিভিন্ন বয়সের শিশু ও বৃদ্ধ সহ সমস্ত মানুষই কম বেশী আক্রান্ত হচ্ছে। সেজন্য সব সময় হাত পরিষ্কার রাখা, টয়েলেট ব্যবহারের পর সাবান দিয়ে হাত-পা ধোয়া ও ছোট শিশুদের শুধু মায়ের বুকের দুধ পান করানো। ডায়রিয়া হলে ওরস্যালাইন খাওয়ানোর সর্তকতা হিসেবে আমরা এই মেসেজগুলো দেই। চিকিৎসকরা আরও বলেন, শৈত্যপ্রবাহ বাড়লে শীত জনিত রোগে বৃদ্ধ ও শিশুদের স্বাস্থ্য ঝুকি রয়েছে। এ অবস্থায় রোগীদের সর্তক থাকা প্রয়োজন।

Spread the love
  •  
  •  
  •  

নিউজটি শেয়ার করুন

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

এ বিভাগের আরও খবর
এই নিউজ পোর্টাল এর কোনো লেখা, ছবি, ভিডিও অনুমতি ছাড়া ব্যবহার সম্পূর্ণ বেআইনি ও দণ্ডনীয় অপরাধ ।  About Us | Contact Us | Terms & Conditions | Privacy Policy
Design & Developed by Freelancer Zone
themesba-lates1749691102