শিরোনামঃ
আশুলিয়ায় জাতীয় শ্রমিক লীগের মে দিবসের প্রস্তুতি সভা লালমনিরহাটে রাজশাহী কৃষি উন্নয়ন ব্যাংকের গ্রাহক সমাবেশ রায়গঞ্জে শিক্ষা বিষয়ক গ্লোবাল অ্যাকশন সপ্তাহ উদযাপন উপলক্ষ্যে আলোচনা সভা অনুষ্ঠিত কাজিপুর উপজেলা পরিষদ নির্বাচনে প্রতীক বরাদ্দ যুদ্ধের অর্থ জলবায়ু পরিবর্তনে ব্যয় হলে বিশ্ব রক্ষা পেত সিরাজগঞ্জে ৩টি উপজেলা পরিষদ নির্বাচনের জন্য প্রতীক বরাদ্দ পেলেন ৩১ জন প্রার্থী অগ্রাধিকার পাচ্ছে বাণিজ্য বিনিয়োগ ও ভূরাজনীতি এমপি পুত্রের হলফনামায় তথ্য গোপন মনোনয়ন বাতিলের দাবিতে সংবাদ সম্মেলন বাংলাদেশ থেকে দক্ষ জনশক্তি নিতে চায় কিরগিজস্তান গ্যাস খাতে বড় সংস্কার করবে পেট্রোবাংলা মুক্তিযুদ্ধ ও মুজিবনগর সরকার নিয়ে গবেষণার আহ্বান গাজীপুরে ৭ একর বনভূমি উদ্ধার যোগ্যতা ও উন্নয়ন দেখে ভোট দিন-খলিলুর রহমান; কাজিপুর উপজেলা পরিষদ নির্বাচন তীব্র তাপদাহ,গাজীপুরে এক দিনে ২৩ ডায়েরিয়া রোগি ভর্তি কালিয়াহরিপুর ইউনিয়নের পাটচাষীদের মাঝে বিনামূল্যে পাটবীজ ও সার বিতরণ ঠাকুরগাঁওয়ে ঐতিহ্যবাহী বৈশাখী মেলাকে আবদ্ধ করার প্রতিবাদে সংবাদ সম্মেলন এপ্রিলের ১৯ দিনে রেমিট্যান্স এসেছে ১২৮ কোটি ডলার চালের বিকল্প হিসেবে গম আমদানি করছে সরকার বীর মুক্তিযোদ্ধা আয়নুল হক আর নেই এবার ৪৫ টাকা কেজিতে চাল ও ৩২ টাকায় ধান কিনবে সরকার

রাশেদুল ইসলাম রাশেদ,স্টাফ রিপোর্টার:

গাইবান্ধায় বিয়ের পর মানসিক ভারসাম্য হারিয়ে চার বছর ধরে শেকলবন্দি এমদাদুল!

কলমের বার্তা / ১৫৭ বার পড়া হয়েছে।
সময় কাল : মঙ্গলবার, ১০ মে, ২০২২

শেকলবন্দি জীবন এমদাদুল হকের। বিয়ের পর মানসিক ভারসাম্য হারিয়ে অস্বাভাবিক আচরণ করতে থাকায় তার মা শেকলবন্দি করে রাখেন। বহু চেষ্টার পরও তাকে স্বাভাবিক জীবনে ফেরানো যায়নি, চার বছরের বেশি সময় কাটছে শেকলবন্দি জীবন। চিকিৎসকরা বলছেন, উন্নত চিকিৎসায় ভালো হয়ে উঠবে এমদাদুল। কিন্তু পাশে থাকা মায়ের সেই সামর্থ্য নেই। তাই সমাজের বিত্তবান ও সরকারের সহায়তা চান এমদাদুলের মা।

গাইবান্ধার সাদুল্লাপুরের বাসিন্দা এমদাদুল। ৫ বছর আগে বিয়ে করেন তিনি। পরিবার জানিয়েছে, বিয়ের পর হঠাৎ মানসিক ভারসাম্যহীন হয়ে পড়েন এমদাদ। লোকজনের ওপর চড়াও হওয়া, আসবাব-জিনিসপত্র ভাঙচুরসহ নানা অস্বাভাবিক আচরণ শুরু করেন তিনি। এক পর্যায়ে সংসার ছেড়ে যান স্ত্রীও। বাধ্য হয়ে এমদাদকে শেকলবন্দি করে রাখেন মা।

স্থানীয়রা জানান, ১০ বছর আগে দিনমজুর বাবাকে হারান এমদাদুল। ৬ ভাইয়ের মধ্যে তিনি সবার ছোট। সবাই আলাদা থাকায় মাই তার একমাত্র ভরসা। এমদাদুলকে সুস্থ করে তুলতে সাধ্যমতো চিকিৎসা সেবা দেয়ার চেষ্টা করেন তমর্জিনা বেগম। এখন আর সেই অবস্থাও নেই তার।

এমদাদুলের অসুস্থতার খবর জেনে তার পাশে থাকার আশ্বাস দিয়েছে উপজেলা সমাজ সেবা অধিদফতর। হাসপাতাল সমাজ সেবা কার্যক্রমের মাধ্যমে তাকে সব ধরনের সহযোগিতা দেয়া হবে বলেও জানান সাদুল্লাপুরের উপজেলা সমাজ সেবা কর্মকর্তা মানিক রায়। চিকিৎসকরা জানিয়েছেন, উন্নত চিকিৎসা দেয়া গেলে এমদাদুল হক ফিরতে পারেন স্বাভাবিক জীবনে।

 

91


আপনার মতামত লিখুন :

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

এই বিভাগের আরো খবর