শুক্রবার, ১৪ মে ২০২১, ১২:৫৩ অপরাহ্ন

ঘুড়কা ইউনিয়ন পরিষদ নির্বাচনে চেয়ারম্যান পদে দলীয় মনোনয়ন প্রত্যাশী জুয়েল

নিজস্ব প্রতিবেদক:
  • সময় কাল : শনিবার, ১৩ ফেব্রুয়ারী, ২০২১
  • ৩২৫ বার পড়া হয়েছে

সাধারণ মানুষের ভাগ্য পরিবর্তনের লক্ষ্য নিয়ে কাজ করে যাওয়ার প্রত্যয় নিয়ে এগিয়ে যেতে চান সলঙ্গা থানা ছাত্রলীগের সাবেক সাংগঠনিক সম্পাদক ও বর্তমান সলঙ্গা থানা আওয়ামী যুবলীগের আহবায়ক কমিটির সদস্য জুয়েল রানা তালুকদার। জুয়েল রানা তালুকদার সিরাজগঞ্জের রায়গঞ্জ উপজেলার সলঙ্গা থানার ঘুড়কা ইউনিয়নের শ্রীরামেরপাড়া গ্রামের মৃত সেরাজুল ইসলাম মাষ্টারের ছেলে।

তার বাবা মরহুম সেরাজুল ইসলাম মাষ্টার একজন সমাজসেবক হিসেবে ইউনিয়নবাসীর কাছে বেশ পরিচিত ছিলেন। জুয়েল বলেন,আমার বাবা জনগণের পাশে থেকে সেবা করেছে। আমিও বাবার মত মানুষের পাশে থেকে সেবা করতে চাই।
আমি ঘুড়কা ইউনিয়ন পরিষদের চেয়ারম্যান প্রার্থী হিসেবে নির্বাচন করবো। জনগণের সেবা করার জন্যই চেয়ারম্যান নির্বাচন করতে চাই।
জানা গেছে, জুয়েলের বাবা মরহুম সেরাজুল ইসলাম মাষ্টারের এলাকায় রয়েছে ব্যাপক পরিচিতি। তিনি একজন সামাজিক ও সাংস্কৃতিক ব্যক্তিত্ব হিসেবেও পরিচিত ছিলেন। শুধু তাই নয়, অসহায় দরিদ্রের বন্ধু বলেও সবার মাঝে পরিচিতি ছিল ব্যাপক। যে কোন সামাজিক কাজে ছুটে যেতেন তার বাবা সেরাজুল ইসলাম মাষ্টার৷ এমনকি ভালো কাজকে হ্যা এবং খারাপ কাজকে না বলতেন ৷ সবসময় ন্যায়ের পক্ষে এবং অন্যায়ের বিপক্ষে কথা বলেছেন৷ঘুড়কা ইউনিয়নবাসী জানান,জুয়েলের বাবা সেরাজুল ইসলাম মাষ্টারের মৃত্যুর পর জুয়েল সাধারন মানুষের পাশে থেকে সেবা করছেন। যার কারনে ধীরেধীরে বাড়তে থাকে সমাজে জুয়েলের জনপ্রিয়তা৷ জনগণের একটাই কথা তিনি চেয়ারম্যান নির্বাচিত হলে পাল্টে যাবে এই ইউনিয়নের চিত্র। ঘুড়কা ইউনিয়ন হবে মডেল ইউনিয়ন। আর থাকবে না রাস্তাঘাটের কারনে ভোগান্তি। এমনকি ইউনিয়ন পরিষদ থেকে সার্বক্ষণিক নাগরিকত্ব সেবা পাবে জনগণ।

ঘুড়কা ইউনিয়নবাসী জানিয়েছেন, অন্যায় ও দুর্নীতির বিরুদ্ধে জুয়েল একজন প্রতিবাদী কণ্ঠস্বর। কোন অনিয়ম দুর্নীতিকে প্রশ্রয় দেন না তিনি। ঠিক তার বাবার মত। এমনকি মাদকের বিরুদ্ধে সবসময় কঠোর তিনি৷ তরুণ ও যুবসমাজ যেন মাদকের ভয়াবহ ছোঁবলে না পড়ে সেজন্য ইউনিয়নের বিভিন্ন এলাকায় যুবক ও তরুনদের নিয়ে মতবিনিময় ও উঠোন বৈঠক করছেন৷

সব মিলিয়ে জুয়েল তালুকদার জনপ্রতিনিধি হিসেবে দেখতে চান ইউনিয়নবাসী। তবে এখন সময়ের অপেক্ষায় রয়েছে জনগণ। আওয়ামীলীগ দলীয় মনোনয়ন ক্ষেত্রেও তিনি অনেকটাই আসাবাদী বলে জানা গেছে৷ নির্বাচনের ভোটের মধ্য দিয়ে জুয়েলের বিজয় নিশ্চিত হবে বলেও জানান এলাকাবাসী।

ঘুড়কা ইউনিয়ন পরিষদের চেয়ারম্যান প্রার্থী জুয়েল তালুকদার বলেন,ঘুড়কা ইউনিয়ন পরিষদের যারা প্রার্থী হয়েছে তারা প্রায়ই জামায়াত বিএনপি পরিবারের সদস্য। আমি একমাত্র শতভাগ আওয়ামী পরিবারের সন্তান হিসেবে দলীয় মনোনয়ন প্রত্যাশী। জনগণ চাচ্ছে বলেই আমি নির্বাচন করতে ইচ্ছে প্রকাশ করেছি। মাননীয় প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা আমাকে দলীয় মনোনয়ন দিলে জনগনের পাশে থেকে নির্বাচন করবো ইনশাআল্লাহ। কারন জনগণের ভোট ছাড়া আমি নির্বাচনে বিজয়ী হতে পারবো না৷ তাই জনগণের সিদ্ধান্তই আমার চুড়ান্ত সিদ্ধান্ত।

তিনি আরও বলেন, আমরা মানুষ জাতি হিসেবে অন্যদের পাশে থেকে তাদের সেবা করাটা আমাদের দায়িত্ব। আগামীতে আমি ইউপি নির্বাচন করবো শুধু জনগণের জন্য। বিগতদিন থেকেই স্বপ্ন ছিল জনপ্রতিনিধি হয়ে জনগণের পাশে থাকবো৷ তাই সকলের চাওয়ায় আমি নির্বাচন করবো বলে সিদ্ধান্ত নিয়েছি। আমার জন্য সবাই দোয়া করবেন৷

Spread the love
  •  
  •  
  •  

নিউজটি শেয়ার করুন

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

এ বিভাগের আরও খবর
themesba-lates1749691102