বৃহস্পতিবার, ২১ অক্টোবর ২০২১, ০২:৩৭ পূর্বাহ্ন
শিরোনাম :
বরগুনার বেতাগীতে সম্প্রীতি রক্ষায় ইসলামী আন্দোলনের পরামর্শ সভা লালমনিরহাটে মন্দির পাহাড়ায় ছাত্রলীগ নেতা-কর্মীরা সুন্দরগঞ্জের সোনারায় ইউনিয়নে একই পরিবারের ৩ ভাই নৌকা প্রার্থী ! তিস্তার পানি বিপৎসীমার ৬০ সেন্টিমিটার ওপর দিয়ে প্রবাহিত মির্জাপুরে পানির বোতল ও কেক বিতরণ করলেন যুবদল নেতা আজিজ সাম্প্রদায়িক সন্ত্রাসের বিরুদ্ধে গাইবান্ধায় সম্প্রীতি সমাবেশ ও শান্তি শোভাযাত্রা অনুষ্ঠিত সাঁকোয়া ব্রীজ এলাকায় ইপিজেড স্থাপনের দাবিতে গণসমাবেশ সিরাজগঞ্জ জেলা আওয়ামী লীগের উদ্যোগে দেশ ব্যাপী সাম্প্রদায়িক সন্ত্রাসের বিরুদ্ধে শান্তি শোভাযাত্রা কাজিপুরে শান্তি ও সম্প্রতি র‍্যালী চরএলাহী ইউনিয়ন শাখা জাতীয়তাবাদী প্রবাসী কল্যাণ পরিষদের কমিটির অনুমোদন

তাড়াশে মৃত ব্যক্তিকে জীবিত দেখিয়ে ভাতার টাকা আত্মসাত কারী সেই ইউপি সদস্য সাময়িক বরখাস্ত

সোহেল রানা সোহাগ:
  • সময় কাল : বৃহস্পতিবার, ৩০ সেপ্টেম্বর, ২০২১
  • ২৮১ বার পড়া হয়েছে

সিরাজগঞ্জের তাড়াশে মৃত ব্যক্তিকে জীবিত দেখিয়ে এক বছরের ভাতার টাকা উত্তোলন করে আত্মসাত কারী সেই ইউপি সদস্য মো: ইলিয়াস আলী কে সাময়িকভাবে বরখাস্ত করা হয়েছে। গত ২৬ সেপ্টেম্বর স্থানীয় সরকার,পল্লী উন্নয়ন ও সমবায় মন্ত্রণায়ের স্থানীয় সরকার বিভাগ ইউনিয়ন পরিষদ শাখা-১ এর উপ সচিব মো: আবু জাফর রিপন কর্তৃক স্বাক্ষরিত এক চিঠিতে এ তথ্য নিশ্চিত করা হয়েছে।

বিষয়টি নিশ্চিত করে উপজেলা নির্বাহী অফিসার মো: মেজবাউল করিম বলেন, স্থানীয় সরকার মন্ত্রণালয়ের করা সাময়িক বরখাস্তের চিঠি পেয়েছি। অভিযুক্ত ইউপি সদস্য মো: ইলিয়াস আলী কে ইতিমধ্যেই নোটিশ দেয়া হয়েছে।

জানা যায়, উপজেলার ২ নং বারুহাস ইউনিয়নের ৭ নং ওয়ার্ডের সদস্য মো: ইলিয়াস আলী বিনসাড়া গ্রামের মৃত: অনিল চন্দ্র বাদ্যকরের স্ত্রী ফুলকুমারী বয়স্কভাতাভোগী হিসেবে তালিকাভূক্ত হয়। গত এক বছর আগে ফুলকুমারী মারা গেলে অভিযুক্ত ইউপি সদস্যমো: ইলিয়াস আলী তার নিজ মোবাইল নম্বরে দিয়ে কৌশলে ব্যাংক এশিয়ার মাধ্যমে এক বছরের ভাতার টাকা তুলে আত্মসাত করেন।

এ বিষয়ে মৃত ফুলকুমারীর ছেলে চিনি বাদ্যকর উপজেলা নির্বাহী অফিসার ও ইউপি চেয়ারম্যান বরাবর প্রতিকার চেয়ে আবেদন করেন। এ নিয়ে বিভিন্ন গণমাধ্যমে সংবাদ প্রকাশিত হলে গত ১৩ জুলাই উপজেলা নির্বাহী অফিসার তিন সদস্যর তদন্ত টিম গঠন করেন। তদন্ত কমিটি প্রতিবেদন দাখিল করলে, স্থানীয় সরকার( ইউনিয়ন পরিষদ)আইন,২০০৯ এর ৩৪(৪)(খ)ও(ঘ) এর অপরাধ সংঘটিত করার অপরাধে, কেন তাকে চূড়ান্তভাবে অপসারণ করা হবেনা, তার জবাব প্রাপ্তির ১০ কার্যদিবসের মধ্যে সিরাজগঞ্জ জেলা প্রশাসকের মাধ্যমে জবাব দিতে বলা হয়েছে। অভিযুক্ত ইউপি সদস্য মো: ইলিয়াস আলী বলেন, কারণ দর্শানো নোটিশ পেয়েছি। আইনি প্রক্রিয়ায় এর জবাব দেয়া হবে।

এ প্রসঙ্গে বারুহাস ইউনিয়ন পরিষদের চেয়ারম্যান মো: মোক্তার হোসেন মুক্তা বলেন, ঘটনাটি খুব লজ্জাজনক। তবে এ সংক্রান্ত কোন চিঠি পাইনি । সাংবাদিকদের মাধ্যমে বরখাস্তের বিষয়টি জেনেছি।

 

Spread the love
  •  
  •  
  •  

নিউজটি শেয়ার করুন

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

এ বিভাগের আরও খবর
এই নিউজ পোর্টাল এর কোনো লেখা, ছবি, ভিডিও অনুমতি ছাড়া ব্যবহার সম্পূর্ণ বেআইনি ও দণ্ডনীয় অপরাধ ।  About Us | Contact Us | Terms & Conditions | Privacy Policy
Design & Developed by Freelancer Zone
themesba-lates1749691102