বৃহস্পতিবার, ১৭ জুন ২০২১, ১০:৫৫ পূর্বাহ্ন

দর্শক মারা গেছেন যেসব সিনেমা দেখতে গিয়ে

লাইফস্টাইল ডেস্ক
  • সময় কাল : সোমবার, ৭ জুন, ২০২১
  • ৩০ বার পড়া হয়েছে
দর্শক একটি ভালো চলচ্চিত্রের জন‌্য সবসময়ই অপেক্ষা করে থাকেন। কিন্তু বেশ কিছু চলচ্চিত্র রয়েছে যা দেখতে গিয়ে প্রাণ হারিয়েছেন দর্শক। এমন কটি চলচ্চিত্র নিয়ে সাজানো হয়েছে এই প্রতিবেদন।
দ‌্য কনজুরিং-টু :
১৯৭৬ সালের প্রেক্ষাপটে তৈরি হয়েছে ‘দ‌্য কনজুরিং-টু’ সিনেমার গল্প। এর মূল চরিত্র লরেন ও ওয়ারেন। যারা উত্তর লন্ডনে একজন সিঙ্গেল মাদারকে সহযোগিতা করতে যান। যেখানে প‌্যারানরমাল নানা ঘটনা ঘটে। জেমস ওয়ান পরিচালিত এই সিনেমা ২০১৬ সালের ৭ জুন মুক্তি পায়। ৪০ মিলিয়ন ডলার বাজেটের এই সিনেমা আয় করেছিল ৩২১ মিলিয়ন ডলার। আর এই সিনেমা দেখতে গিয়ে তামিল নাড়ুর ৬৫ বছর বয়েসী এক বৃদ্ধ অজ্ঞান হয়ে পড়েন। তাকে হাসপাতালে নেওয়ার পথে মারা যান তিনি।
অ্যাভাটার:
‘অ্যাভাটার’ সিনেমার পটভূমি তৈরি হয়েছে একদল লোভী মানুষ আর নিরীহ প্যানডোরাবাসির মধ্যে এক অসম সাহসী যুদ্ধ নিয়ে। কাহিনির সূত্রপাত ২১৫৪ সালের প্রেক্ষাপটে। যখন আর. ডি. এ আনঅবটেনিয়ামের খোঁজে প্যানডোরা নামক পৃথিবীর মতো এক গ্রহে হাজির হয় মানুষ। যার আবহাওয়া মানুষের উপযোগী নয়। এই গ্রহের অধিবাসীদের বলা হয় নাভি। মানুষের অসাধু ইচ্ছা প্রকাশিত না হয় পর্যন্ত তারা তাদের গ্রহে খুব আনন্দে বসবাস করছিল। এ সিনেমায় থ্রি-ডি এফেক্ট ব‌্যবহার করা হয়েছে। কিন্তু থ্রি-ডি এফেক্ট ব‌্যবহারে বাড়বাড়ন্ত ছিল। যা সইতে না পেরে মারা যান তাইওয়ানের এক যুবক। জেমস ক্যামেরন পরিচালিত এ সিনেমা ২০০৯ সালের ১০ ডিসেম্বর মুক্তি পায়। ২৩৭ মিলিয়ন ডলার বাজেটের এ সিনেমা আয় করেছিল ২.৮৪৭ বিলিয়ন ডলার।
দ্য টোয়াইলাইট সাগা: ইক্লিপস
ভ‌্যাম্পায়ারের গল্প নিয়ে নির্মিত হয়েছে ‘দ্য টোয়াইলাইট সাগা: ইক্লিপস’। এ সিনেমা প্রেক্ষাগৃহে দেখতে গিয়ে মারা যান এক নারী। ডেভিড পরিচালিত এ সিনেমা ২০১০ সালে মুক্তি পায়। ৬৮ মিলিয়ন ডলার বাজেটের এ সিনেমা আয় করেছিল ৬৯৮ মিলিয়ন ডলারের বেশি।
অ‌্যা ফিশ কলড ওয়ান্ডা:
১৯৮৮ সালের ১৫ জুলাই মুক্তি পায় ‘অ‌্যা ফিশ কলড ওয়ান্ডা’। কমেডি ঘরানার এ সিনেমা পরিচালনা করেন চার্লস ক্রিকটন। সিনেমা দেখতে গিয়ে হাসির দমক সইতে না পেরে মারা যান ডেনমার্কের অডিওলজিস্ট বেন্টজেন। ৮ মিলিয়ন ডলার বাজেটের এ সিনেমা আয় করেছিল ১৭৭ মিলিয়ন ডলারের বেশি।
গ্র্যান্ড মাস্তি:
তিন বন্ধু মীত মেহতা, প্রেম চাওলা এবং অমর সাক্সেনা। তারা বিবাহিত। কিন্তু তাদের যৌন জীবন সুখের নয়। মীত মেহতা মনে করে তার স্ত্রী বসের সঙ্গে সম্পর্কে জড়িয়েছে। প্রেম ভাবে তার স্ত্রী তার সঙ্গে কোয়ালিটি টাইম কাটায় না। আর অমর মনে করে তার স্ত্রী পুত্র পাপ্পুর বিষয়ে বেশি উদ্বিগ্ন। তারপর নানা ঘটনার মধ‌্য দিয়ে এগিয়ে যায় ‘গ্র্যান্ড মাস্তি’ সিনেমার গল্প। মূলত ‘গ্র্যান্ড মাস্তি’ কমেডি ঘরানার সিনেমা। কিন্তু এ সিনেমা দেখতে গিয়ে হাসির দমকে হার্ট অ‌্যাটাকে মারা গিয়েছিলেন ২২ বছর বয়েসী এক তরুণ। ইন্দ্র কুমার পরিচালিত এ সিনেমা ২০১৩ সালে মুক্তি পায়। ৩৪ কোটি রুপি বাজেটের সিনেমাটি আয় করে ১২১ কোটি রুপি।
Spread the love
  •  
  •  
  •  

নিউজটি শেয়ার করুন

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

এ বিভাগের আরও খবর
themesba-lates1749691102