শুক্রবার, ১৪ মে ২০২১, ০১:০৮ অপরাহ্ন

দাগনভূঞায় সমন্বিত কৃষি খামার করে দৃষ্টান্ত স্থাপন করেছেন সফল উদ্যোক্তা আবু নাছের তুহিন

গাজীপুর প্রতিনিধি
  • সময় কাল : শুক্রবার, ১৬ এপ্রিল, ২০২১
  • ১৮ বার পড়া হয়েছে

ফেনী দাগনভূঞা পৌরসভা জগতপুর ৪ নং ওয়ার্ডের আয়েশা ডেইরী এন্ড ফ্যাটেনিং ফার্ম ও নানাবিধ প্রানী, কৃষি এবং মৎস খামার প্রতিষ্ঠাতায় অনন্য দৃষ্টান্ত স্থাপন করেছেন মো. আবু নাছের তুহিন। তিনি দাগনভূঞা প্রবীণ পল্লী চিকিৎসক আবু বকর ছিদ্দিক এর বড় ছেলে তিনি।

২০০০ সালে দক্ষিন আফ্রিকায় পাড়ি জমান তিনি। সেখানে গিয়ে ছোট বেলায় লালনকৃত শখের ব্যাবসা করেন গবাদিপশু লালন পালন এবং ব্যাবসা করেন তিনি। পরবর্তীতে ২০১৭ সালে উপার্জিত অর্থ ও ব্যাক্তিগত অর্থ দিয়ে দাগনভূঞা পৌরসভা জগতপুর প্রতিষ্ঠা করেন আয়েশা ডেইরী এন্ড ফ্যাটেনিং নামে এই ফার্ম। যেখানে গরু মোটাতাজাকরণ প্রক্রিয়া, দুগ্ধ উৎপাদন করার মূল লক্ষমাত্রা নিয়ে শুরু হয় খামার। প্রায় ৪শ ৬০ শতাংশ জায়গার উপর নানাবিধ প্রকল্পের মধ্যে ডেইরী ফার্ম এন্ড ফ্যাটেনিং সেন্টার যেখানে হলিষ্টিন ফিজিয়ান, শাহীওয়াল, জারসি ও দেশী উন্নত জাতের গরু রয়েছে। প্রায় ৬০ টি দুগ্ধজাত গরু প্রতিদিন গড়ে একশ লিটার দুধ বাজারজাত করা হয়। এছাড়া উন্নতজাতের ছাগল যমুনা পাড়ি ১৫ টিসহ হাঁস, মুরগী, কবুতর। তিনশ শতাংশের উপর ইরিধানের চাষাবাদে যুক্ত করেছেন মৌসুমি শাকসবজি, কলার চাষ, কচু, কুমড়া, মাছের খামার। মাষ্টার প্লান নিয়ে সাজানো হয়েছে এ বিশাল খামারটি। যা পৌরসভায় অনন্য দৃষ্টান্ত স্থাপন করে। লোকবল রয়েছে আটজন যারা বেকারত্ব দূরকরণে আত্নকর্মসংস্থানে নিয়োজিত এ খামারে। এমন সুন্দর উদ্যোগ জনগনের পুষ্টি চাহিদার পাশাপাশি সমন্বিত খামার পৌরসভায় অন্যতম একটি। ইরি ও শাকসবজি উৎপাদনে বেশ সাফল্য আসছে বলে জানান তিনি। মাত্র তিন বছরে গরুকে বাণিজ্যিকভাবে বড় করা হলে লাখ লাখ টাকা বাৎসরিক আয় করা সম্ভব বলে জানান তুহিন। ৪৫০ শতক ভূমির উপর কোন অংশ অনাবাদি নেই। সমস্ত জমিকে আবাদে আনার লক্ষমাত্রা ও ভবিষ্যৎ পরিকল্পনা নিয়ে দিনরাত পরিশ্রম করছেন এ উদ্যোক্তা।

এ বিষয়ে ফার্মের পরিচালক আবু নাছের তুহিন বলেন, সময় নষ্ট না করে পরিশ্রমী হলে সফলতা সম্ভব। আয়েশা ডেইরি ফার্মে একবার হলেও ভিজিট করার অনুরোধ জানান তিনি।

উপজেলা প্রানি সম্পদ দপ্তরের ভেটেরিনারি সার্জন ডা. মোহাম্মদ তারেক মাহমুদ বলেন, আয়েশা ডেইরি এন্ড ফ্যাটেনিং ফার্মের বিষয়ে সর্বাত্মক সহযোগিতা অব্যাহত রয়েছে।

Spread the love
  •  
  •  
  •  

নিউজটি শেয়ার করুন

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

এ বিভাগের আরও খবর
themesba-lates1749691102