শিরোনামঃ
আশা জাগাচ্ছে বায়ুবিদ্যুৎ ডিসেম্বরে ঘুরবে ট্রেনের চাকা মূল্যস্ফীতি হ্রাসে ব্যাংক থেকে ঋণ কমাতে চায় সরকার বদলে যাবে হাওরের কৃষি বাংলাদেশে নতুন জলবায়ু স্মার্ট প্রাণিসম্পদ প্রকল্প চালু যুক্তরাষ্ট্রের ‘তথ্য দেওয়ার জন্য বাংলাদেশ ব্যাংকে ৩ জন মুখপাত্র নিয়োগ দেওয়া হয়েছে’ অস্বস্তি কাটিয়ে যুক্তরাষ্ট্র-বাংলাদেশ সম্পর্কে নতুন মোড় এমপিদের শুল্কমুক্ত গাড়ি আমদানি সুবিধা উঠে যাচ্ছে ভূমি অধিগ্রহণ জটিলতা দূর ৫০০ একর খাসজমি বরাদ্দ স্বাধীনতাবিরোধীদের পদচিহ্নও থাকবে না: রাষ্ট্রপতি আজ জাতীয় এসএমই পণ্য মেলা উদ্বোধন করবেন প্রধানমন্ত্রী দশতলা বিল্ডিং এর ছাদ থেকে লাফ দিয়ে নারী পোশাক শ্রমিকের মৃত্যু বাগবাটি রাজিবপুর অটিস্টিক ও বুদ্ধি প্রতিবন্ধী স্কুলে হুইল চেয়ার বিতরণ সিরাজগঞ্জ পৌরকর্মচারী ইউনিয়নের দ্বি-বার্ষিক নির্বাচন অনুষ্ঠিত  কাজিপুর খাদ্য গুদামে অভ্যন্তরীণ বোরো -ধান চাউল সংগ্রহ এর উদ্বোধন আদিতমারীতে ধান-চাল ক্রয়ের আনুষ্ঠানিক উদ্বোধন ঠাকুরগাঁওয়ে শিশু নিবির হত্যা মামলায় গ্রেফতার আরেক শিশু বেনাপোল সীমান্তের চোরা পথে ভারতে যাবার সময় মিয়ানমার নাগরিকসহ আটক-৪ বিয়েতে রাজি না হওয়ায় আত্নহত্যা, প্রতিপক্ষকে ফাঁসাতে হত্যা মামলা সিরাজগঞ্জে সাংবিধানিক ও আইনগত অধিকার বিষয়ক কর্মশালা অনুষ্ঠিত

দৃষ্টিনন্দন হচ্ছে রাজধানীর সব সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়

কলমের বার্তা / ১৪৯ বার পড়া হয়েছে।
সময় কাল : বুধবার, ১১ মে, ২০২২

ঢাকার সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়গুলোকে দৃষ্টিনন্দন করে তোলা হবে। বর্তমান অবকাঠামো পরিবর্তন করে নতুন আঙ্গিকে বিদ্যালয়গুলোকে সাজানো হবে। অবকাঠামো অনুযায়ী আধুনিক করে তোলা হবে। সমাজের সব স্তরের মানুষের সন্তানদের ভর্তিতে আগ্রহী করতে এ উদ্যোগ নিয়েছে সরকার।বুধবার (১১ মে) মোহাম্মদপুর সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়ে এ কার্যক্রমের উদ্বোধন করবেন প্রাথমিক ও গণশিক্ষা প্রতিমন্ত্রী মো. জাকির হোসেন।

প্রাথমিক ও গণশিক্ষা মন্ত্রণালয় থেকে জানা যায়, সব শ্রেণি-পেশার অভিভাবকের সন্তানদের সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়ে পড়তে আগ্রহী করতে ঢাকা মহানগরীতে এ প্রকল্প বাস্তবায়ন করা হবে। এর আওতায় ঢাকা মহানগরীর সব সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়ে অবকাঠামোর নকশা আধুনিক করে তোলা হবে। এ জন্য ‘ঢাকা মহানগরী ও পূর্বাচলে সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয় স্থাপন ও অবকাঠামো উন্নয়নসহ দৃষ্টিনন্দনকরণ’ নামে একটি প্রকল্প হাতে নেওয়া হয়েছে।

সংশ্লিষ্টরা জানান, এ প্রকল্পের আওতায় ঢাকা মহানগরীর ৩৪২টি সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়ের মধ্যে ১৫৪টি বিদ্যালয়ের দুই হাজার ৯৭৫টি কক্ষ নতুনভাবে নির্মাণ করা হবে। এ ছাড়া ১৭৭টি বিদ্যালয়ের এক হাজার ১৬৭টি কক্ষের অবকাঠামো উন্নয়নসহ দৃষ্টিনন্দন করা হবে। এ প্রকল্পের আওতায় উত্তরায় তিনটি ও পূর্বাচলে ১১টি সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয় স্থাপন করা হবে। চার বছর মেয়াদি এ প্রকল্প শেষ হবে ২০২৪ সালের ডিসেম্বরে। এর জন্য ব্যয় ধরা হয়েছে এক হাজার ১৫৯ কোটি দুই লাখ ৫৩ হাজার টাকা।

এ বিষয়ে জানতে চাইলে প্রাথমিক শিক্ষা অধিদপ্তরের পরিচালক (প্রকিউরমেন্ট) ও প্রকল্প পরিচালক মো. মিজানুর রহমান বলেন, দেশের অন্যান্য জায়গার তুলনায় ঢাকা মহানগরীর সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়গুলোর অবকাঠামো নাজুক। এ কারণে সব শ্রেণি-পেশার অভিভাবকরা তাদের সন্তানদের এসব বিদ্যালয়ে পড়াতে আগ্রহী হন না। আমরা অভিভাবকদের এসব বিদ্যালয়ে সন্তানদের পাঠাতে উৎসাহিত করতে চাই। বিদ্যালয়গুলো দৃষ্টিনন্দন করার উদ্যোগ এর অন্যতম পদক্ষেপ।

তিনি আরও বলেন, প্রকল্পের মেয়াদ ২০২০ সালের জানুয়ারি থেকে শুরু হলেও করোনা মহামারির কারণে যথাসময়ে কাজ শুরু করা যায়নি। তবে ইতোমধ্যে প্রকল্পের সবকিছু চূড়ান্ত করা হয়েছে। আগামীকাল (বুধবার) প্রাথমিক ও গণশিক্ষা প্রতিমন্ত্রী মো. জাকির হোসেন মোহাম্মদপুর সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়ের উন্নয়নকাজ উদ্বোধন করবেন। এর মাধ্যমে প্রকল্পের মূল কাজ শুরু হবে।

জানতে চাইলে প্রাথমিক শিক্ষা অধিদপ্তরের মহাপরিচালক আলমগীর মুহম্মদ মনসুরুল আলম মঙ্গলবার (১০ মে) বলেন, প্রথম ধাপে রাজধানীর ২০টি বিদ্যালয়ের নকশা তৈরি করা হচ্ছে। দুটি নকশা (ডিজাইন) চূড়ান্ত হওয়ায় সেগুলোর কাজ শুরু করা হচ্ছে। অবকাঠামো অনুযায়ী প্রতিটি বিদ্যালয়ের আলাদা আর্কিটেকচার ডিজাইন করা হবে।

তিনি বলেন, বাহিরে খেলার মাঠ ছাড়াও ভেতরে ইনডোর মাঠ করা হবে। আধুনিক ওয়াশরুম, অভিভাবক ছাউনি, শহীদ মিনারসহ বিদ্যালয়ের জন্য সব সুবিধা তৈরি করা হবে।

98


আপনার মতামত লিখুন :

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

এই বিভাগের আরো খবর