শিরোনামঃ
বন্দির জন্য মোবাইল ফোন এনে বরখাস্ত হলেন কারারক্ষী আগুনে ঘর পুড়ে ছাই, খোলা আকাশের নিচে ৫ পরিবার পাইপলাইনে তেল খালাসের যুগে বাংলাদেশ কৃষকদের ‘শিক্ষিত’ করতে ৬৫০ কোটির প্রকল্প দুর্বল ব্যাংক একীভূত আগামী বছর এক কার্ডেই মিলবে রোগীর সব তথ্য, মার্চের মধ্যে শুরু রাজাকারের পূর্ণাঙ্গ তালিকা মার্চেই নতুন মন্ত্রীদের শপথ আজ, বিবেচনায় তিনটি বিষয় বিমা ব্যবসায় নামছে পাঁচ ব্যাংক অপরাধের নতুন ধরন মোকাবিলায় পুলিশকে প্রস্তুতি নিতে হবে: শেখ হাসিনা বেইলি রোডে আগুনের ঘটনায় প্রধানমন্ত্রীর শোক ভাঙ্গুড়ায় বঙ্গমাতা শেখ ফজিলাতুন্নেসা মুজিব ফুটবল কাপ টুর্নামেন্ট অনুষ্ঠিত সিরাজগঞ্জে ইআরসিসিপি প্রকল্পের উপকার ভোগীদের আয়বৃদ্ধিমূলক কার্যক্রমের আর্থিক সহায়তা প্রদান উল্লাপাড়ায় ইট ভাটা ও হাইওয়ে রেষ্টুরেন্টকে ৬০ হাজার টাকা জরিমানা ভাঙ্গুড়ায় অষ্টমনিষা ইউনিয়ন আওয়ামী স্বেচ্ছাসেবক লীগের কমিটি গঠন গাজীপুরে মাদ্রাসা সুপার ও সভাপতির দূর্ণীতির প্রতিবাদে মানববন্ধন পতেঙ্গা কন্টেনার টার্মিনাল চালু হচ্ছে এপ্রিলে স্বাস্থ্য অধিদপ্তরের অভিযানে দুদিনে বন্ধ ২০ হাসপাতাল শিক্ষাপ্রতিষ্ঠানের গভর্নিং বডিতে স্থান পাবেন না ঋণখেলাপিরা ৭ মাসে রেমিট্যান্স এসেছে এক লাখ ৪২ হাজার কোটি টাকা

পদ্মা সেতু আলোয় উদ্ভাসিত, সব বাতি জ্বলেছে

কলমের বার্তা / ১৪৮ বার পড়া হয়েছে।
সময় কাল : শনিবার, ১১ জুন, ২০২২

বাস্তবে রূপ নেওয়া স্বপ্নের পদ্মা সেতু এখন আলোয় উদ্ভাসিত। শুক্রবার সেতুর মাওয়া প্রান্তের ৬২টি ল্যাম্পপোস্টের বাতি পরীক্ষামূলকভাবে জ্বালানো হয়েছে। এর মধ্যে মূল সেতু ও ভায়াডাক্টের ৪১৫টি বাতির সবকটি জ্বালানো সম্পন্ন হয়েছে।

প্রকল্পের সহকারী তড়িৎ প্রকৌশলী সাদ্দাম হোসেন এ তথ্য জানিয়েছেন। তিনি জানান, মাওয়া আপস্টিমের ৪০টি এবং মাওয়া নর্থ ভায়াডাক্টের ২২টি বাতি জ্বালানো হয়েছে। এর মাধ্যমে সেতু আলোকিত করতে বাতির পরীক্ষামূলক প্রজ্জ্বলন সম্পন্ন হয়েছে।

গত শনিবার ২৪টি ল্যাম্পপোস্টে বাতি প্রজ্জ্বলনের কাজ শুরু হয়। রোববার ১৮টি, সোমবার ৪২টি, মঙ্গলবার ১৪৮টি, বুধববার ৬৪টি এবং বৃহস্পতিবার ৫৭টি বাতি জ্বালানো হয়। আগামী ২৫ জুন পদ্মা সেতুতে যান চলাচল উদ্বোধন করবেন প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা। এখন শুধু সেতুতে রেলিং স্থাপনের কাজ বাকি।

২০২১ সালের ২৫ নভেম্বর মাওয়া প্রান্তে সেতুর ভায়াডাক্টে ল্যাম্পপোস্ট স্থাপন শুরু হয়। ছয় দশমিক ১৫ কিলোমিটার দীর্ঘ সেতুতে ল্যাম্প পোস্ট ৩২৮টি। জাজিরা প্রান্তের ভায়াডাক্টে ৪৬টি ও মাওয়া প্রান্তের ৪১টি ল্যাম্প পোস্ট রয়েছে।

প্রকল্প সূত্র জানিয়েছে, ঘণ্টায় ২০০ কিলোমিটার গতির ঝড়েও টিকে থাকবে চীনে তৈরি এসব ল্যাম্প পোস্ট। ফিলিপস কোম্পানির ১৭৫ ওয়াটের নিউট্রাল সাদা আলোর বাতি লাগানো হয়েছে। ভায়াডাক্ট থেকে মাওয়া প্রান্তের টোল প্লাজা পর্যন্ত সংযোগ সড়ক আলোকিত করতে ১০৩টি এবং জাজিরা প্রান্তের সংযোগ সড়কে ৯৭টি ল্যাম্প পোস্ট বসানো হয়েছে। প্রতিটি ল্যাম্পপোস্টের উচ্চতা ১১ দশমিক ২ মিটার, ওজন ২৭৫ কেজি। একটি থেকে আরেকটির দূরত্ব ৩৭ দশমিক পাঁচ মিটার।

70
Spread the love


আপনার মতামত লিখুন :

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

এই বিভাগের আরো খবর