শিরোনামঃ
বন্দির জন্য মোবাইল ফোন এনে বরখাস্ত হলেন কারারক্ষী আগুনে ঘর পুড়ে ছাই, খোলা আকাশের নিচে ৫ পরিবার পাইপলাইনে তেল খালাসের যুগে বাংলাদেশ কৃষকদের ‘শিক্ষিত’ করতে ৬৫০ কোটির প্রকল্প দুর্বল ব্যাংক একীভূত আগামী বছর এক কার্ডেই মিলবে রোগীর সব তথ্য, মার্চের মধ্যে শুরু রাজাকারের পূর্ণাঙ্গ তালিকা মার্চেই নতুন মন্ত্রীদের শপথ আজ, বিবেচনায় তিনটি বিষয় বিমা ব্যবসায় নামছে পাঁচ ব্যাংক অপরাধের নতুন ধরন মোকাবিলায় পুলিশকে প্রস্তুতি নিতে হবে: শেখ হাসিনা বেইলি রোডে আগুনের ঘটনায় প্রধানমন্ত্রীর শোক ভাঙ্গুড়ায় বঙ্গমাতা শেখ ফজিলাতুন্নেসা মুজিব ফুটবল কাপ টুর্নামেন্ট অনুষ্ঠিত সিরাজগঞ্জে ইআরসিসিপি প্রকল্পের উপকার ভোগীদের আয়বৃদ্ধিমূলক কার্যক্রমের আর্থিক সহায়তা প্রদান উল্লাপাড়ায় ইট ভাটা ও হাইওয়ে রেষ্টুরেন্টকে ৬০ হাজার টাকা জরিমানা ভাঙ্গুড়ায় অষ্টমনিষা ইউনিয়ন আওয়ামী স্বেচ্ছাসেবক লীগের কমিটি গঠন গাজীপুরে মাদ্রাসা সুপার ও সভাপতির দূর্ণীতির প্রতিবাদে মানববন্ধন পতেঙ্গা কন্টেনার টার্মিনাল চালু হচ্ছে এপ্রিলে স্বাস্থ্য অধিদপ্তরের অভিযানে দুদিনে বন্ধ ২০ হাসপাতাল শিক্ষাপ্রতিষ্ঠানের গভর্নিং বডিতে স্থান পাবেন না ঋণখেলাপিরা ৭ মাসে রেমিট্যান্স এসেছে এক লাখ ৪২ হাজার কোটি টাকা

জাহিদ হাসান জিহাদ গাজীপুর থেকেঃ

বাবার বিরুদ্ধে প্রধানমন্ত্রী কার্যালয়ে ছেলের অভিযোগ

কলমের বার্তা / ৬২ বার পড়া হয়েছে।
সময় কাল : সোমবার, ১৮ সেপ্টেম্বর, ২০২৩

গাজীপুরের পুবাইল থানা আওয়ামী লীগের সভাপতি আজিজুর রহমান শিরিষ ও তার দুই ছেলে মহানগর যুবলীগের আহবায়ক সদস্য রাজিবুল হাসান রাজিব ও হোসাইনুর রহমান রুবেলের বিরুদ্ধে প্রধানমন্ত্রী কার্যালয়, জেলা প্রশাসক ও গাজীপুর পুলিশ কমিশনার বরাবর লিখিত অভিযোগ করেছেন তার বড় ছেলে হাসানুর রহমান রাসেল। বিষয়টি জানাজানি হলে এলাকায় ব্যাপক চাঞ্চল্যের সৃষ্টি হয়।

অভিযোগ সুত্রে জানা যায়, ক্ষমতার অপব্যবহার করে দীর্ঘদিন যাবৎ পুবাইল এলাকায় জমি দখলসহ নানা অপকর্ম করে আসছিলেন থানা আওয়ামী লীগের সভাপতি আজিজুর রহমান শিরিষ ও তার দুই ছেলে। এসব বিষয় জানতে পেরে বড় ছেলে রাসেল তাদের বাধা দিলে তার উপর শুরু হয় শারিরীক ও মানসিক নির্যাতন। বাবা আজিজুর রহনান শিরিষের নির্দেশে একাধিক বার জোরপূর্বক মাদকসেবী বানিয়ে রিহ্যাবে ভর্তি করায় ছোট ভাই রাজিব ও রুবেল। পরে বিভিন্ন ইনজেকশন দিয়ে তাকে হত্যার চেষ্টাও করা হয়। নানা অপবাদ দিয়ে সমাজে হেয় প্রতিপন্ন করার অপচেষ্টা চলানো হচ্ছে। রাসেলের দাবী তার বাবা আজিজুর রহমান শিরিষের লালসার শিকার হয়ে সংসার ছেড়েছিলেন তার প্রথম স্ত্রী। এছাড়া তার দুই ছোট ভাই প্রতিনিয়ত তাকে মামলা মোকদ্দমার ভয় দেখিয়ে এলাকা ছাড়া করার ঘৃন্য চেষ্টায় লিপ্ত আছে।
বর্তমানে তিনি স্ত্রী সন্তানসহ নিরাপত্তাহীনতায় ভুগছেন। এবিষয়ে সুষ্ঠু সমাধান চেয়ে প্রধানমন্ত্রী, জেলা প্রশাসক ও পুলিশ কমিশনার এর দারস্থ হয়েছেন তিনি।

এবিষয়ে আজিজুর রহমান শিরিষ বলেন, এসব অভিযোগ সম্পূর্ণ অবান্তর। আমার বড় ছেলে দীর্ঘদিন যাবৎ মাদকাসক্ত সে কাউকে মানে না। আমরা তাকে তিন বার রিহ্যাব সেন্টারে পাঠিয়েছি। সেখান থেকে বের হয়ে সে আবার উল্টো পাল্টা শুরু করেছে। যেহেতু প্রধানমন্ত্রী কার্যালয়ে অভিযোগ দিয়েছে আমরাও চাই সুষ্ঠু তদন্ত হোক।

75
Spread the love


আপনার মতামত লিখুন :

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

এই বিভাগের আরো খবর