বুধবার, ২৭ অক্টোবর ২০২১, ০৪:৪২ অপরাহ্ন
শিরোনাম :
সিরাজগঞ্জের সলঙ্গায় সড়ক দূর্ঘটনায় সাংবাদিকের মৃত্যু রাজাপুরে ‘অপরাজিতা’ বিষয় ভিত্তিক বিশেষজ্ঞদের সাথে মতবিনিময় সভা অনুষ্ঠিত চালিতাডাঙ্গা ইউপি নির্বাচনে চেয়ারম্যান পদে আওয়ামী লীগ দলীয় মনোনয়ন প্রত্যাশী শাহিন আলম আমবাড়িতে কৃষি কাজে সহযোগিতা প্রজেক্টরের মাধ্যমে সম্প্রচার মাদ্রাসায় আর্থিক অনুদান প্রদান করেন চেয়ারম্যান প্রার্থী ইন্জিঃ আলী আকবর বাঘাবাড়িতে তেলের গোডাউনে ভয়াবহ অগ্নিকান্ড, কোটি টাকার ক্ষয়-ক্ষতি সিপিডিএএর প্রতিষ্ঠাবার্ষিকীর অনুষ্ঠান উদযাপন নয়াপাড়া রয়েল ক্লাবের সভাপতি সাব্বির, সা.সম্পাদক সিহাব রবীন্দ্র বিশ্ববিদ্যালয়ের ১৪ শিক্ষার্থীর মাথার চুল কেটে দেওয়ার ঘটনার প্রমাণ পেয়েছে তদন্ত কমিটি সিরাজগঞ্জের সলঙ্গায় গাঁজা ও ইয়াবা ট্যাবলেটসহ ২ জন গ্রেফতার

ভালুকা উপজেলা তাঁতী লীগের কমিটি নিয়ে ধুম্রজাল

ভালুকা (ময়মনসিংহ) প্রতিনিধি:
  • সময় কাল : রবিবার, ১০ জানুয়ারী, ২০২১
  • ৮১ বার পড়া হয়েছে

ময়মনসিংহের ভালুকা উপজেলা তাঁতী লীগের কমিটি নিয়ে ধুম্রজাল তৈরি হয়েছে। জেলা তাঁতী লীগের সভাপতি এবং সাধারণ সম্পাদকের স্বাক্ষর জালিয়াতি করার অভিযোগ উঠেছে। এ বিষয়ে গত ০৮ জানুয়ারী জেলা তাঁতী লীগের সভাপতি তাজুল ইসলাম জুয়েল ও সাধারণ সম্পাদক আমানুল ইসলাম জলিল এক প্রেস বিজ্ঞপ্তি প্রদান করেছেন।

জানা যায়, বর্তমান সরকারের তৃতীয় মেয়াদে ক্ষমতায় আসার পর ২ই জুন ভালুকা উপজেলা তাঁতী লীগের প্রতিষ্ঠাতা কমিটির সভাপতি এ.এম. কামরুজ্জামান ও সাধারণ সম্পাদক এস এইচ ফরহাদ নেতৃত্বাধীন ৬১ সদস্য বিশিষ্ট কমিটি বিলুপ্ত করে দলিল লেখক জয়নাল আবেদীনকে আহবায়ক ও মেহেদী হাসান রিফাত সদস্য সচিব করে নতুন কমিটির অনুমোদন দেন। পরবর্তীতে গত বছরের ২ ডিসেম্বর ময়মনসিংহ জেলা তাঁতীলীগের অর্ন্তগত সকল উপজেলা ও পৌরসভা কমিটি মেয়াদ উত্তীর্ণ হওয়া ও সময়মত কমিটি করতে না পারায় বিলুপ্ত করা হয়।

গত বছরের ২৪ ডিসেম্বর এ.এম. কামরুজ্জামানকে সভাপতি ও এস এইচ ফরহাদকে সাধারণ সম্পাদক করে পুনরায় ৬১ সদস্য বিশিষ্ট নয়া কমিটি ঘোষণা করা হয়। চলতি মাসের ৭ জানুয়ারী জয়নাল আবেদিনকে সভাপতি ও মেহিদি হাসান রিফাতকে সাধারণ সম্পাদক করে জেলা কমিটির সভাপতি ও সাধারণ সম্পাদক স্বাক্ষরিত একটি কমিটি সামাজিক যোগাযোগের মাধ্যমে প্রকাশ হয়। ফলে ধু¤্রজাল তৈরি হলে জেলা তাঁতী লীগের সভাপতি ও সাধারণ সম্পাদক একটি প্রেস বিজ্ঞপ্তি প্রকাশ করে বলেন, কামরুল-ফরহাত কমিটি বহার আছে। এ বিষয়ে কেউ কোন মিথ্যা তথ্য উপস্থাপন করে বিভ্রান্তি তৈরি করলে জেলা তাঁতী লীগ দায়ি থাকবেনা। এবং যারা এ কাজের সাথে জড়িত তাদের বিরুদ্ধে আইনগত ব্যাবস্থা নেওয়া হবে।
উপজেলা তাঁতীলীগের সাবেক আহবায়ক জয়নাল আবেদিন বলেন, জেলা কমিটির কার্যক্রমে আমরা বিব্রত। একক সময় একেক কমিটি ঘোষণা করেন।

উপজেলা তাঁতীলীগের প্রতিষ্ঠাতা সভাপতি এ.এম. কামরুজ্জামান বলেন, কমিটির বিষয়টি জেলা কমিটির সভাপতি ও সাধারণ সম্পাদক মহোদয় পরিস্কার করেছেন। আমরা জেলা কমিটির নেতাদের সিদ্ধান্তের প্রতি আস্থাশীল।

ময়মনসিংহ জেলা তাঁতী লীগের সাধারণ সম্পাদক আমানুল ইসলাম জলিল বলেন, জেলা তাঁতী লীগের সভাপতি এবং সাধারণ সম্পাদকের স্বাক্ষর জালিয়াতি করে যারা নিজেদের প্রভাব খাটিয়ে নেতা হওয়ার চেষ্টা করেছেন তাদের বিরুদ্ধে মামলা সাজানো হয়েছে। কি ধরনের মামলা? জানতে চাইলে তিনি বলেন, আমাদের স্বাক্ষর জালিয়াতি এবং সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে তা ছড়িয়ে দেওয়ার জন্য মানহানির মামলা দায়ের করার প্রস্ততি নিচ্ছি আমরা।

ময়মনসিংহ জেলা তাঁতী লীগের সভাপতি মো. তাজুল ইসলাম জুয়েল বলেন, গত ২৪ ডিসেম্বর কামরুল-ফরহাদ কমিটির অনুমোদন দিয়েছি তা বৈধ এবং বলবৎ আছে। তিনি জয়নাল-মেহেদি কমিটিকে অবৈধ বলে আখ্যায়িত করেন। তিনি আরও বলেন, আমাদের স্বাক্ষর জাল করে জয়নাল-মেহেদি কমিটি আমাদের জেলা তাঁতী লীগের প্যাড তৈরি করে তা সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে প্রকাশ করে। আমরা এ বিষয়ে যথাযথ ভাবে অবগত আছি এবং স্থানীয় এমপি মহোদয়ের সাথে কথা বলেছি। সাংগঠনিকভাবেও আমরা জেলা নেতৃবৃন্দের সাথে আলোচনা করে যথাযথ আইনানুগ ব্যবস্থা গ্রহণ করব।

Spread the love
  •  
  •  
  •  

নিউজটি শেয়ার করুন

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

এ বিভাগের আরও খবর
এই নিউজ পোর্টাল এর কোনো লেখা, ছবি, ভিডিও অনুমতি ছাড়া ব্যবহার সম্পূর্ণ বেআইনি ও দণ্ডনীয় অপরাধ ।  About Us | Contact Us | Terms & Conditions | Privacy Policy
Design & Developed by Freelancer Zone
themesba-lates1749691102