• সোমবার, ২৬ ফেব্রুয়ারী ২০২৪, ১১:২৫ অপরাহ্ন
শিরোনামঃ
ভাঙ্গুড়ায় জাতীয় প্রাথমিক শিক্ষা পদক প্রতিযোগিতা অনুষ্টিত আগামী চার মাসে প্রাথমিকে নিয়োগ হবে ১০ হাজার শিক্ষক স্মার্ট বাংলাদেশ বিনির্মাণে সরকার সঠিক পথেই এগিয়ে যাচ্ছে বাংলাদেশের অর্থনৈতিক প্রবৃদ্ধি ও উন্নয়ন অনেক দেশের অনুপ্রেরণা ২৪ দিনে দেশে রেমিট্যান্স এলো ১৮ হাজার কোটি টাকা বস্ত্রখাতে বিশেষ অবদান, সম্মাননা পাচ্ছে ১১ সংগঠন ও প্রতিষ্ঠান সম্পর্কের নতুন অধ্যায় শুরু করতে আগ্রহী বাংলাদেশ-যুক্তরাষ্ট্র সংরক্ষিত ৫০ নারী আসনে সবাই বিনা প্রতিদ্বন্দ্বিতায় জয়ী সম্মানী ভাতা বাড়ল কাউন্সিলরদের ‘শেখ হাসিনার বাংলাদেশে প্রাণিজ প্রোটিনের অভাব হবে না’ বঙ্গবন্ধুর সমাধিতে জাতীয় ও আগরতলা প্রেসক্লাবের নেতাদের শ্রদ্ধা সিরবজগঞ্জে চালক-হেলপার হত্যা,মৃত্যুদন্ড পলাতক আসামি গ্রেফতার সিরাজগঞ্জে জেলা পর্যায়ে প্র‌শিক্ষণ প্রাপ্ত ইমাম সম্মেলন অনুষ্ঠিত সিরাজগঞ্জে কৈশোর মেলা অনুষ্ঠিত গাজীপুরে পূর্ব বিরোধের জেরে যুবক খুন সলঙ্গায় যুবককে কুপিয়ে ইজিবাইক ছিনতাই, ৩৬ ঘন্টা পর উদ্ধার আটক ১ নারী এমপিরা সংসদে যোগ দিচ্ছেন চলতি অধিবেশনেই টোলের আওতায় আসছে দেশের সাত মহাসড়ক আলোচনায় মন্ত্রিসভা সম্প্রসারণ পর্যটক টানতে কুয়াকাটায় হচ্ছে বিমানবন্দর

ভূট্টা বোঝাই ট্রাক সহ ড্রাইভার উধাও ১১ দিন পর ঢাকায় আটক

কলমের বার্তা / ৩০ বার পড়া হয়েছে।
সময় কাল : মঙ্গলবার, ৫ ডিসেম্বর, ২০২৩

মো আসাদুজ্জামান ঠাকুরগাঁও সংবাদাতা: ঠাকুরগাঁওয়ে মেসার্স ডটার্স মিল থেকে ৩৮০ বস্তা ভূট্টা নিয়ে ঢাকার উদ্দেশ্যে যাওয়ার পথে মাল বোঝাই ট্রাক সহ ড্রাইভার পালানোর অভিযোগে মামলা দায়ের করেছে ডটার্স মিলের ম্যানেজার স্বপন রায়।

গত শুক্রবার (১ ডিসেম্বর) ঠাকুরগাঁও সদর থানায় মামলা দায়ের করেন তিনি। পরে আশুলিয়া থানা পুলিশ বিশেষ অভিযান চালিয়ে ঢাকা বাইপেল এলাকা থেকে তাকে আটক করে।

মামলার বিবরণে জানা যায়, ঠাকুরগাঁও রোড বাজারের মেসার্স ডটার্স মিলের ম্যানেজার নভেম্বরের ২০ তারিখে ৩৮০ বস্তা ভূট্টা ( ওজন ২২,৫০০ কেজি,মূল্য ৭,২৩,০০০ টাকা) সহ গাজীপুর বাঘের বাজার কোয়ালিটি ফিড মিলে পাঠায়। ট্রাক নাম্বার ঢাকা মেট্রো-ট-১৫-৩০৫৬ ও ট্রান্সপোর্ট চালান নং ৫০৭৮। সময় অনুযায়ী ২২ নভেম্বর গাড়িটি ঢাকায় পৌঁছানোর কথা থাকলেও যান্ত্রিক ত্রুটির কারণে বিলম্ব হচ্ছে বলে জানান ড্রাইভার। পরে কয়েকটি গত হ‌ওয়ায় পরেও কেন ঢাকায় পৌঁছায়নি কারন জানতে চাইলে ড্রাইভার কালক্ষেপন করতে থাকে। পরে গত শুক্রবার তিনি ট্রাক ড্রাইভার জাহিদ হাসান বাবু ও ট্রাক মালিকের নামে মামলা দায়ের করে।

এর‌ই প্রেক্ষিতে পুলিশ বিশেষ অভিযান পরিচালনা করে এবং আসামি বাবুর ছবি ও ট্রাকের নাম্বার সহ ঢাকার কয়েকটি ট্রাক শ্রমিক ইউনিয়নে পাঠিয়ে দেয়। পরে ওই দিন রাত সাড়ে ১২ টায় ড্রাইভার বাবুকে ঢাকার বাইপেল এলাকায় ঘোরাফেরা করতে দেখলে আশুলিয়া থানা পুলিশের সহযোগিতা তাকে আটক করে এবং তার দেওয়া তথ্যমতে ট্রাকের মালিক রতন মিয়ার সন্ধান পায়। পরে রতনের বাসায় অভিযান চালালে তাকে আটক করতে পারেনি। পরে পুলিশ আরো জানতে চাইলে ট্রাক ড্রাইভার বাবু জানায় ভুট্টা গুলো তারা বগুড়ার গাবতলী থানার মালিয়ানডাঙ্গার শিপন মিয়ার কাছে বিক্রি করেছে। পুলিশ ড্রাইভার বাবুর দেওয়া তথ্যমতে বগুড়ার গাবতলী থেকে শিপন মিয়াকে আটক করে এবং তার কাছে জানতে পারে তিনি ওই ভূট্টা আব্বাস আলী নামে এক ব্যক্তির কাছে বিক্রি করে দিয়েছেন। পরে শিপন মিয়ার দেওয়া তথ্যমতে আব্বাস আলী কে গ্রেফতার করে পুলিশ এবং তার দেওয়া তথ্যমতে তিনি ওই ভূট্টা গাজীপুর জেলার জয়দেবপুর থানার হাজী ফিড মিলে বিক্রি করেছেন বলে জানান। পরদিন শনিবার রাত ২টার দিকে হাজী ফিড মিলে গেলে মিল কতৃপক্ষ নগদ টাকা দিয়ে ভুট্টা কিনেছেন বলে জানান। পরে মিলের ঊর্ধ্বতন কর্তৃপক্ষের সাথে আলোচনা করে চুরি হ‌ওয়া। মালামাল ওই মিলের গোডাউন ঘর হতে জব্দ করেন।

মামলায় গ্রেফতারকৃত আসামিরা হলেন, ট্রাক ড্রাইভার জাহিদ হাসান বাবু (২৫), তিনি খুলনা জেলার দাকোপ থানার কেওড়াখালী গ্রামের কামরুজ্জামানের ছেলে। ভূট্টা ক্রেতা শিপন মিয়া(২৭) তিনি বগুড়া জেলার গাবতলী থানার মালিয়ানডাঙ্গা গ্রামের টুকু মন্ডলের ছেলে। অপর আসামি আব্বাস আলী (৫০) বগুড়া জেলার ধুনট থানার চালাপাড়া গ্রামের মৃত ময়েজউদ্দিন মুন্সির ছেলে।

মামলার তদন্তকারী কর্মকর্তা এসআই জাহাঙ্গীর হোসেন জানান, ঠাকুরগাঁও থেকে ছেড়ে যাওয়া ভূট্টার ট্রাকটি ঢাকায় না পৌঁছিয়ে প্রতারক চক্রের হাতে পড়ে। পরে আশুলিয়া থানা পুলিশের সহযোগিতায় ড্রাইভার জাহিদ হাসান বাবুকে আটক করা হয় এবং তার দেওয়া তথ্য মতে ভূট্টার প্রথম ক্রেতা শিপন মিয়াকে আটক করা হয় এবং শিপন মিয়ার দেওয়া তথ্য মতে অপর ক্রেতা আব্বাস আলী কে আটক করা হয় এবং তার দেওয়া তথ্য মতে গাজীপুরের জয়দেবপুর থানা হতে হাজী ফিডমিল থেকে সম্পূর্ণ ভূট্টা গুলো জব্দ করা হয়।

তিনি আরো জানান, উল্লেখিত তিনজন আসামিকে গতকাল শনিবার বিজ্ঞ আদালতের সোপর্দ করা হয় এবং ম্যাজিস্ট্রেটের নিকট তাদের স্বীকারোক্তিমূলক জবানবন্দী রেকর্ড করা হয়। সেই সাথে মামলায় জড়িত থাকা অন্যান্য আসামিদের গ্রেপ্তারে আমরা তৎপর আছি।

ঠাকুরগাঁও সদর থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) ফিরোজ কবির জানান, ৩ জনকে আটক করা হয়েছে বাকিদের আটকের জন্য পুলিশ তৎপর রয়েছে।

37
Spread the love


আপনার মতামত লিখুন :

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

এই বিভাগের আরো খবর