• শুক্রবার, ১৯ এপ্রিল ২০২৪, ০৪:১৪ পূর্বাহ্ন
শিরোনামঃ
সিরাজগঞ্জ সদরে প্রাণিসম্পদ সেবা সপ্তাহ ও প্রদর্শনীর শুভ উদ্বোধন অসহায় হাকিম ও আয়শা দম্পতির সহানুভ‚তি নিবাসের উদ্বোধন উল্লাপাড়ায় জামাত নেতার সাথে ছবি ভাইরালের ঘটনায় সংবাদ সম্মেলন ফের আশা জাগাচ্ছে লালদিয়া চর কনটেইনার টার্মিনাল ‘মাই লকারে’ স্মার্টযাত্রা আগামী সপ্তাহে থাইল্যান্ড সফরে যাচ্ছেন প্রধানমন্ত্রী মধ্যপ্রাচ্য পরিস্থিতির ওপর নজর রাখার নির্দেশ প্রধানমন্ত্রীর লালমনিরহাটে প্রাণিসম্পদ সেবা সপ্তাহ ও প্রদর্শনী ২০২৪ অনুষ্ঠিত! ব্যাংকের আমানত বেড়েছে ১০.৪৩ শতাংশ সিরাজগঞ্জে ঐতিহাসিক মুজিবনগর দিবস উপলক্ষে আলোচনা সভা অনুষ্ঠিত বঙ্গবাজারে দশতলা মার্কেটের নির্মাণ কাজ শুরু শিগগিরই বেঁচে গেলেন শতাধিক যাত্রী ঐতিহাসিক মুজিবনগর দিবস আজ মন্ত্রী-এমপিদের প্রভাব না খাটানোর নির্দেশ প্রধানমন্ত্রীর মুজিবনগর দিবসে রাষ্ট্রপতি ও প্রধানমন্ত্রীর বাণী বাস ও সিএনজি মুখোমুখি সংঘর্ষ নিহত-১  লালমনিরহাটে বিএসএফের গুলিতে ইউপি সদস্য আহত গাজীপুরে বয়লার বিস্ফোরণে চীনা প্রকৌশলীর মৃত্যু,আহত ৬ বাংলাদেশী কোনাবাড়ীতে অটোরিক্সার চাপায় ৩ বছরের শিশু মৃত্যু দ্বাদশ সংসদের দ্বিতীয় অধিবেশন বসছে ২ মে

মতিঝিলে নির্মাণ হচ্ছে বঙ্গবন্ধু বিমা ভবন

কলমের বার্তা / ১৫৭ বার পড়া হয়েছে।
সময় কাল : বৃহস্পতিবার, ২১ এপ্রিল, ২০২২

দেশের বিমা খাতে জাতির পিতা বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের অবদানকে স্মরণীয় করে রাখতে বঙ্গবন্ধু বিমা ভবন নির্মাণের সিদ্ধান্ত নিয়েছে বিমা উন্নয়ন ও নিয়ন্ত্রণ কর্তৃপক্ষ (আইডিআরএ)। রাষ্ট্রীয় মালিকানাধীন জীবন বিমা করপোরেশনের সঙ্গে যৌথভাবে এ ভবন নির্মাণ করা হবে। সংশ্লিষ্ট সূত্রে এ তথ্য জানা গেছে।

আইডিআরএ সূত্র জানায়, রাজধানীর প্রাণকেন্দ্র ৮০, মতিঝিলে জীবন বিমা করপোরেশনের ৮ কাঠা জায়গার ওপর নির্মাণ করা হবে বঙ্গবন্ধু বিমা ভবন। ২০ তলাবিশিষ্ট এই ভবন নির্মাণে অর্থায়ন করবে সরকার। আগামী ৬ মাসের মধ্যে ভবনের নির্মাণকাজ শুরু হওয়ার কথা রয়েছে। দৃষ্টিনন্দন এই বঙ্গবন্ধু বিমা ভবন হবে বিমা খাতের নিয়ন্ত্রক সংস্থা আইডিআরএর নতুন ও স্থায়ী ঠিকানা।

এ বিষয়ে বিমা উন্নয়ন ও নিয়ন্ত্রণ কর্তৃপক্ষের নির্বাহী পরিচালক (যুগ্ম সচিব) ও মুখপাত্র এস এম শাকিল আখতার বলেন, এটা আমাদের জন্য খুবই প্রয়োজন। প্রতিষ্ঠার পর থেকেই ভাড়া অফিসে কার্যক্রম পরিচালনা করে আসছে আইডিআরএ। প্রয়োজনীয় জনবলও নেই আমাদের। এ অবস্থায় বাংলাদেশ ব্যাংকের মতো বিমা উন্নয়ন ও নিয়ন্ত্রণ কর্তৃপক্ষের একটি অবকাঠামো সময়ের দাবি। এ পরিপ্রেক্ষিতে জীবন বিমা করপোরেশনের সঙ্গে যৌথভাবে বঙ্গবন্ধু বিমা ভবন নির্মাণের সিদ্ধান্ত নেয়া হয়েছে। এরই মধ্যে আর্থিক প্রতিষ্ঠান বিভাগ থেকে অনুমোদন দেয়া হয়েছে। বিষয়টি নিয়ে প্রয়োজনীয় স্টাডিও করা হয়েছে। এছাড়াও পাওয়ার অব অ্যাটর্নি নেয়ার জন্য একটি কমিটি গঠন করা হয়েছে। আশা করা হচ্ছে, আগামী ৬ মাসের মধ্যে প্রজেক্টটির বাস্তবায়ন শুরু হবে।

সংশ্লিষ্ট সূত্রে জানা গেছে, ১৯৭১ সালে বাংলাদেশ স্বাধীন হওয়ার পূর্বে এ অঞ্চলে দেশি-বিদেশি ৬৭টি বিমা কোম্পানি রেজিস্ট্রিকৃত ছিল। জাতির পিতা বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমান বিমা শিল্পের উন্নয়নে ১৯৭২ সালের ৮ আগস্ট এ শিল্পকে জাতীয়করণ করেন। পরবর্তী সময়ে ১৯৮৪ সালে আইন সংশোধনের মাধ্যমে বেসরকারি বিমা প্রতিষ্ঠান গঠনের সুযোগ প্রদান করে সরকার। আইডিআরএ গঠনের পূর্বে দেশের বিমা ব্যবসার উন্নয়ন ও নিয়ন্ত্রণের দায়িত্ব ছিল বাণিজ্য মন্ত্রণালয়ের অধীন বিমা অধিদপ্তরের ওপর। ২০১০ সালের মার্চ মাসে জাতীয় সংসদে উত্থাপিত একটি বিলের মাধ্যমে পূর্বের ‘বিমা অথরিটি’ বিলুপ্ত করে ‘বিমা উন্নয়ন ও নিয়ন্ত্রণ কর্তৃপক্ষ’ (আইডিআরএ) প্রতিষ্ঠা করে সরকার। ২০১১ সালের ২৬ জানুয়ারি আনুষ্ঠানিকভাবে কার্যক্রম শুরু করে আইডিআরএ। এরপর দীর্ঘ এক দশক পেরিয়ে গেলেও স্থায়ী ঠিকানা বা নিজস্ব ভবন নির্মাণ করতে পারেনি বিমা খাতের নিয়ন্ত্রক সংস্থা আইডিআরএ। বর্তমানে রাজধানীর ৩৭/এ, দিলকুশা বাণিজ্যিক এলাকার সাধারণ বিমা করপোরেশনের ‘এসবিসি টাওয়ার’ এর ৯ম তলায় ফ্লোর ভাড়া নিয়ে অফিসিয়াল কার্যক্রম পরিচালনা করছে বিমা উন্নয়ন ?ও নিয়ন্ত্রণ কর্তৃপক্ষ।

অন্যদিকে ২০১১ সালে আইডিআরএ গঠন হলেও সাংগঠনিক কাঠামোর আদেশ জারি হয় ২০১৫ সালের ১৬ ফেব্রুয়ারি। এরপর ২০২১ সালের ১২ এপ্রিল ‘বিমা উন্নয়ন ও নিয়ন্ত্রণ কর্তৃপক্ষ কর্মচারী চাকরি প্রবিধানমালা-২০২১’ এর গেজেট প্রকাশ করে সরকার। তবে অনুমোদিত অর্গানোগ্রাম অনুযায়ী যথাযথ প্রক্রিয়া অনুসরণ করে খুব শিগগিরই কর্মকর্তাদের পদায়ন বা আত্তীকরণ সম্ভব হচ্ছে না কর্তৃপক্ষ সূত্রে জানা গেছে। বর্তমানে একজন চেয়ারম্যান ও দুইজন সদস্য এবং ৮৩ জন কর্মকর্তা-কর্মচারী নিয়ে সার্বিক কার্যক্রম পরিচালনা করছে বিমা উন্নয়ন ও নিয়ন্ত্রণ কর্তৃপক্ষ। দেশের সরকারি-বেসরকারি ৩৫ লাইফ ও ৪৬ নন-লাইফ বিমা প্রতিষ্ঠানের উন্নয়ন ও নিয়ন্ত্রণে কাজ করে যাচ্ছে কর্তৃপক্ষ। এছাড়াও ১৩৭টি বিমা জরিপকারী প্রতিষ্ঠানের নিয়ন্ত্রণেও কাজ করছে সংস্থাটি।

উল্লেখ্য, ১৯৬০ সালের ১ মার্চ জাতির পিতা বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমান আলফা ইন্স্যুরেন্স কোম্পানিতে যোগদান করেন। সে সময় তার মাসিক মূল বেতন ছিল ১ হাজার ৪০০ টাকা। এর সঙ্গে ২৫০ টাকা ভাতা ও ২৫০ টাকা বিনোদন-ভাতা পেতেন। অর্থাৎ মোট ১ হাজার ৯০০ টাকা পেতেন। ১৯৫২ সালে পাকিস্তানের করাচিতে প্রতিষ্ঠিত আলফা ইন্স্যুরেন্স কোম্পানি ঢাকায় শাখা স্থাপন করে ১৯৫৯ সালের অক্টোবরে। তৎকালীন জিন্নাহ এভিনিউতে ছিল এর শাখা অফিস।

এরপর চট্টগ্রামের আন্দরকিল্লায় কোম্পানিটির আরেকটি শাখা কার্যালয় স্থাপন করা হয়। ১৯৭১ সালে বাংলাদেশ স্বাধীন হওয়ার পর বিমা শিল্পের প্রসারে বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমান ‘বাংলাদেশ বিমা জাতীয়করণ আদেশ-১৯৭২ ও ইন্স্যুরেন্স করপোরেশন অ্যাক্ট ১৯৭৩’ প্রণয়ন করেন। বঙ্গবন্ধুর বিমা পেশায় যোগদানের দিনটিকে স্মরণে রাখতে ১ মার্চকে জাতীয় বিমা দিবস হিসেবে ঘোষণা করেছে সরকার। ২০২০ সাল থেকে সারাদেশে যথাযোগ্য মর্যাদায় পালিত হয়ে আসছে এই জাতীয় বিমা দিবস।

91


আপনার মতামত লিখুন :

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

এই বিভাগের আরো খবর