সোমবার, ১৪ জুন ২০২১, ০৩:৪০ পূর্বাহ্ন

মির্জাপুর তরফপুরে মাছ ধরাকে কেন্দ্র করে সংঘর্ষ, আহত ১

Reportar Name
  • সময় কাল : রবিবার, ১৬ আগস্ট, ২০২০
  • ১২৪৭ বার পড়া হয়েছে

মাসুদ পারভেজ, স্টাফ রিপোর্টার :

মাছ ধরাকে কেন্দ্র করে সংঘর্ষের ঘটনাটি ঘটেছে টাঙ্গাইল মির্জাপুর তরফপুর ইউনিয়নের ডৌহাতলী গ্রামে।গত ১৩/০৮/২০২০ ইং তারিখে সকাল আনুমানিক ৯ টায় এ ঘটনা ঘটে। উক্ত সংঘর্ষে গুরুতর আহত হন সজীব মিয়া (২২),পিতা:আব্দুল কাদের ওরফে কদম আলী (৫৫),সাং- ডৌহাতলী। জানা যায়, সজীব ও তার বাবার উপর পুরনো শত্রুতার জের ধরেই এ হামলা করেছে। হামলাকালীন সময় হামলাকারীরা মোট আনুমানিক ৪০-৫০ জন ছিলেন এরকম তথ্য দেন এলাকাবাসী। হামলায় সজীব গুরুতর আহত হলে স্থানীয়রা তাকে মির্জাপুর উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে নিয়ে ভর্তি করেন। পরে সজীবের বাবা বাদী হয়ে মির্জাপুর থানায় ৮ জনকে আসামী করে একটি লিখিত অভিযোগ দায়ের করেন এবং ১০- ১৫ জনের নাম অজ্ঞাত রাখেন।
আসামীরা হলেন-১. হৃদয় (২০),পিতা:কলু মিয়া ২. মোস্তফা (২৬),পিতা:শুকুর আলী ৩. জাহাঙ্গীর (২৬),পিতা:লতিফ ৪. রনি (২৭),পিতা:মুন্না মিয়া ৫. মনি মিয়া (৩৫),পিতা:মৃত বাহর মিয়া ৬. আবুল হোসেন (৩০),পিতা: কাজিমুদ্দিন ৭. হুমায়ুন (৪০), পিতা:তাহেজ চকিদার, উভয় সাং- তরফপুর, ৮. আব্দুল করিম (৪০),পিতা:মৃত আব্দুল বাছেদ, সাং- ডৌহাতলী
সরেজমিনে গিয়ে জানা যায়, উক্ত ঘটনার মূলহোতা ও হুকুমদাতা মামলার ৮ নং আসামী আব্দুল করিম। আরো জানা যায়, আসামীরা সজীবের বাড়িতে গিয়েও বাড়িঘর ভাঙ্গচুর করে আনুমানিক ২০ হাজার টাকার ক্ষতিসাধন করেন।

৮ নং আসামী আব্দুল করিমের সাথে কথা বললে তিনি বলেন, আমি ঘটনার সাথে জড়িত না। পূর্বের শত্রুতার জের ধরে আমাকে ফাসানো হয়েছে।

মামলার বাদী কদম আলী বলেন,আমাদের জমিতে করিম ও তার দল মিলে মাছ ধরতে আসে, আমরা বাধা দিলে আমাদের উপর অতর্কিত হামলা চালায়। আমি এর সুষ্ঠু বিচার দাবি করছি।

এ বিষয়ে মির্জাপুর থানার এ এস আই এনামুল ঘটনার সত্যতা স্বীকার করে বলেন, মামলার বিবাদীদের বিরুদ্ধে আইন অনুযায়ী ব্যবস্থা গ্রহন করা হবে।

Spread the love
  •  
  •  
  •  

নিউজটি শেয়ার করুন

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

এ বিভাগের আরও খবর
themesba-lates1749691102