বুধবার, ২৯ সেপ্টেম্বর ২০২১, ১২:৫৪ পূর্বাহ্ন
শিরোনাম :
মির্জাপুরে প্রধানমন্ত্রীর ৭৫ তম জন্মদিন পালন বড়াইগ্রাম পৌরসভায় প্রধানমন্ত্রীর জন্মদিনে এতিমদের মাঝে খাবার বিতরণ ভালুকায় প্রধানমন্ত্রীর জন্মদিন উপলক্ষে ছাত্রলীগের উদ্যোগে বৃক্ষরোপণ ও দোয়া মাহফিল রাজাপুরে শেখ হাসিনা’র ৭৫ তম জন্মদিন পালন জয়পুরহাটে ছাত্রীকে অপহরণ ও ধর্ষণ মামলায় এক যুবকের ৭২ বছর কারাদণ্ড শেখ হাসিনার জন্মদিন উপলক্ষে এতিম শিশুদের নিয়ে কেক কর্তন ভালুকায় প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার ৭৫তম জন্মদিন উদযাপন প্রধানমন্ত্রী’র জন্মদিন উপলক্ষে শিবরাম স্কুল এন্ড কলেজে স্মারকবৃক্ষ রোপণ অনুষ্ঠিত ঠাকুরগাঁওয়ে প্রধানমন্ত্রীর জন্মদিনে শিক্ষার্থীদের মাঝে খাদ্যসামগ্রী বিতরণ বর্নাড্য আয়োজনে রূপগঞ্জে শেখ হাসিনার জন্মদিন পালন

লালমনিরহাটে আসামি গ্রেফতারের দাবিতে সংবাদ সম্মেলন

আশরাফুল হক, লালমনিরহাট:
  • সময় কাল : বুধবার, ৮ সেপ্টেম্বর, ২০২১
  • ১৭০ বার পড়া হয়েছে

লালমনিরহাটে নারী ও শিশু নির্যাতন দমন আইনে দায়ের করা মামলার আসামি কামরুজ্জামান কাজলকে গ্রেফতার ও বিচারের দাবিতে সংবাদ সম্মেলন করেছেন মামলার বাদি ফাতেমা বেগম।

বুধবার (৮ সেপ্টেম্বর) সকালে লালমনিরহাট প্রেসক্লাব সম্মেলন কক্ষে ভুক্তভোগী পরিবার এ সংবাদ সম্মেলনের আয়োজন করেন। সরবরাহকৃত লিখিত বক্তব্য ও মামলা সূত্রে জানা যায়, গত বছর এপ্রিলের ১২ তারিখে লালামনিরহাট সদর উপজেলার বড়বাড়ী ইউনিয়নের বড়বাশুরিয়া গ্রামের আনোয়ার হোসেনের ছেলে কামরুজ্জামান কাজল কৌশলে প্রতিবেশী ঝালমুড়ি বিক্রেতা নুরুজ্জামানের কন্যাকে (১৮) রাতে বসত বাড়ির কাাছে বাথরুমের পাশে নিয়ে জোরপূর্বক ধর্ষণের চেষ্টা করে। কন্যাটির আত্মচিৎকারে আশপাশের লোকজন ছুটে এলে পালিয়ে যায় ছেলেটি।

পরে মা ফাতেমা বেগম (৪২) লালমনিরহাট সদর থানায় একটি লিখিত অভিযোগ দাখিল করলে থানা কর্তৃপক্ষ তা আমলে নিয়ে মামলা নথিভুক্ত করেন। সম্প্রতি সময়ে ভুক্তভোগী পরিবার জানতে পারে আসামি কামরুজ্জামান কাজল তথ্য গোপন করে সরকারি চাকরিতে যোগদান করেছেন এবং বর্তমানে তিনি প্রশিক্ষণে রয়েছেন।

সংবাদ সম্মেলনে মামলার বাদী ফাতেমা বেগম বলেন, আমি গত ১৯/০৪/২০২০ ইং তারিখে বাদী হয়ে লালমনিরহাট সদর থানায় নারী ও শিশু নির্যাতন দমন আইনে একটি মামলা দায়ের করেছি। যাহার মামলা নং ২০/২২৪। এখন বিভিন্নভাবে আসামি তার ক্ষমতা দেখিয়ে মামলা তুলে নেওয়ার হুমকি দিয়ে আসছে।

এমন ঘটনার পর প্রাণভয়ে লালমনিরহাট সদর থানায় হাজির হয়ে ভুক্তভোগী ফাতেমা গত ০২/০৫/২০২১ ইং তারিখে একটি সাধারন ডাইরী করিলে তা থানায় নথিভূক্ত হয় যাহার নম্বর- ৭৭৭। তদন্তে পুলিশ ঘটনা স্থল পরিদর্শন শেষে চলে আসবার পর আবারো ওই আসামী কামরুজ্জামান কাজলের বাবা আনোয়ার হোসেন ও তার আত্মীয়-স্বজনসহ লাঠিয়াল বাহিনী নিয়ে ফাতেমার বসত বাড়িতে এসে সন্ত্রাসী কায়দায় হুমকি-ধামকি দিয়ে মামলা তুলে নিতে বলে এবং একেক সময় ভিন্ন- ভিন্ন ফোন নম্বর থেকে মোবাইলে জঘন্য ভাষায় গালিগালাজসহ হুমকি প্রদান করে। এ বিষয়েও লালমনিরহাট সদর থানায় জিডি করেন ওই মামলার বাদি ফাতেমা বেগম।যাহার নম্বর-১৩৬৯ তারিখ-২৫/০৮/২০২১। এর আগে স্থানীয় জনপ্রতিনিধি, গন্যমান্য ব্যক্তিবর্গ বিষয়টি আপষ-মিমাংসার চেষ্টা করে। তাদের উভয়পক্ষের সম্মতি নিয়ে কন্যাটির সাথে কাজলের বিয়ে দিবে মর্মে শালিসের রায় দেয়া হয়। যা আসামী পক্ষ মেনে নেয়। পরে কাজলের অভিভাবক তাকে সু-কৌশলে পালিয়ে যেতে সহযোগীতা করে।

এসময় মামলার বাদি ফাতেমা সাংবাদিকদের উদ্দেশ্যে আরো বলেন, আমি নিতান্তই গরীব, আমার স্বামী পেশায় একজন ঝালমুড়ি বিক্রেতা। এমতাবস্থায় নিরুপায় হয়ে আপনাদের মাধ্যমে সংশ্লিষ্টদের দৃষ্টিগোচর করতে আজকে এ সংবাদ সম্মেলনের আয়োজন করেছি। আমার মেয়ে আপনাদের কারো বোন, কারো কন্যা ভেবে তার ভবিষ্যতের কথা চিন্তা করে লিখনির মাধ্যমে সুবিচার পেতে গরিব এ পরিবারটি সাংবাদিকদের সহযোগিতা কামনা করেন।

 

Spread the love
  •  
  •  
  •  

নিউজটি শেয়ার করুন

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

এ বিভাগের আরও খবর
এই নিউজ পোর্টাল এর কোনো লেখা, ছবি, ভিডিও অনুমতি ছাড়া ব্যবহার সম্পূর্ণ বেআইনি ও দণ্ডনীয় অপরাধ ।  About Us | Contact Us | Terms & Conditions | Privacy Policy
Design & Developed by Freelancer Zone
themesba-lates1749691102