মঙ্গলবার, ২১ সেপ্টেম্বর ২০২১, ১১:৫৫ অপরাহ্ন
শিরোনাম :
বেতাগীতে বিবিচিনি স্কুল অ্যান্ড কলেজএ এনসিটিএফ ইস্কুল কমিটি গঠন মহেশখালী পৌরসভা ও ইউনিয়ন পরিষদে জয় হলেন যারা টঙ্গীতে বগি লাইনচ্যুত, সাড়ে ৩ ঘন্টা পর উদ্ধার কার্যক্রম শুরু সিরাজগঞ্জের সলঙ্গায় পূর্ব শত্রুতার জেরে গৃহবধুকে মারধরের অভিযোগ ইউপি নির্বাচনে নৌকার মাঝি হয়ে শক্ত হাতে বৈঠা ধরবে যুবলীগ নেতা তুহিন উল্লাপাড়ার করতোয়ানদীতে এইচটি ইমাম স্মৃতি ফাইনাল নৌকা বাইচ প্রতিযোগিতা অনুষ্ঠিত মির্জাপুরে “মানবতার হাতের” উদ্যোগে ফ্রি চক্ষু মেডিকেল ক্যাম্প গাজীপুরে পরকীয়ার জেরে স্ত্রী হত্যা, স্বামী গ্রেপ্তার রূপগঞ্জে জালিয়াতি করে কৃষকের সর্বনাশ কুড়িগ্রাম জেনারেল হাসপাতালে নার্সদের অবহেলায় ২ শিশুর মৃত্যুর অভিযোগ

আল-আমিন সরকার: একজন সফল ও জনপ্রিয় ইউপি চেয়ারম্যান

নিজস্ব প্রতিনিধি :
  • সময় কাল : বুধবার, ১৪ জুলাই, ২০২১
  • ২৩৬ বার পড়া হয়েছে

উল্লাপাড়া উপজেলার পূর্ণিমাগাঁতী ইউনিয়নের জনকল্যানে তার কৃতিত্বের কোনো কমতি নেই। স্কুল, কলেজ, মাদ্রাসা, মসজিদ ও মন্দির রাস্তা-ঘাট সবখানেই রয়েছে তার বিশেষ অনুদান। বৈশ্বিক মহামারী (কোভিট-১৯) করোনা কালে নিজের জীবনের ঝ্ুঁকি নিয়ে জনস্বার্থে রাত বিরাতে বেড়িয়ে পড়েছেন হাঁট-বাজার, রাস্তা-ঘাট ও কর্মস্থলে সকলকে সতর্ক করা ও নিয়ম কানুন মেনে চলার পরামর্শ দেয়ার জন্য।

সরকারী অনুদানের পাশাপাশি নিজস্ব তহবিল থেকে সহায়তা করছেন অসহায় ও কর্মহীন মানুষকে। এছাড়াও নিজের কর্মব্যস্ততার মাঝে মূল্যবান অবসর সময়টুকু পরিবারে সাথে না কাটিয়ে নিজ ইউনিয়নের জনগণের সাথে কাটিয়েছেন বেশি সময়। জনসেবাই যেনো তাঁর নেশা। এছাড়াও রয়েছে তার অসংখ্য জনসেবা ও সৎকর্মের ইতিহাস।

মাননীয় এম.পি তানভীর ইমামের সার্বিক দিক নির্দেশনায় নিষ্ঠা ও সততার সাথে এলাকার উন্নয়নমূলক কর্মকান্ড বাস্তবায়ন করে চলেছেন উল্লাপাড়া উপজেলার পূর্ণিমাগাঁতী ইউনিয়নের চেয়ারম্যান আল-আমীন সরকার। গরিব, অসহায় ও মেহনতি মানুষের বন্ধু হিসেবে ইতিমধ্যেই ইউনিয়নবাসীর মনে বিশেষ স্থান করে নিয়েছেন। মহামারি করোনাকালে জীবনের ঝুঁকি নিয়ে সরকারি বরাদ্দের ত্রান-সামগ্রী ইউনিয়নের অসহায়, দুস্থ মানুষের ঘরে ঘরে পৌঁছে দিয়েছেন।

পাশাপাশি নিজ অর্থায়নেও রাতের অন্ধকারে দুস্থ ও অসহায় মানুষের বাড়িতে বাড়িতে পৌঁছে দিয়েছেন নিত্যপ্রয়োজনীয় পন্য সামগ্রী। বর্তমানে দেশব্যাপী মহামারি করোনা ভাইরাসে মৃত্যু আর আক্রান্তের সংখ্যা ক্রমশই বেড়েই চলেছে।মৃত্যু আর আক্রান্তের ভয়ে যেখানে মানুষ ঘর থেকে বের হচ্ছেনা। ঠিক সেই সময় কঠোর লকডাউন উপেক্ষা করে অহসায়, দুস্থ মানুষের পাশে মানবতার হাত বাড়িয়েছেন চেয়ারম্যান আল-আমিন সরকার। অব্যাহত রেখেছেন হাত ধোয়া, মাস্ক পরিধান করা এবং মাস্ক বিরতণ কার্যক্রম।

পবিত্র ঈদ উপলক্ষে ইউনিয়নের অসহায় মানুষের কাছে পৌঁছে দিয়েছেন মাননীয় প্রধানমন্ত্রীর ঈদ উপহার। তার সাধ্যমত অসহায় মানুষের পাশে দাঁড়িয়েছেন। তিনি এলাকার মানুষের সেবায় কাজ করে যাচ্ছেন। আগমী ইউপি নির্বাচনে পুনরায় নির্বাচিত হলে ইউনিয়নের রাস্তা-ঘাট, অবকাঠামোসহ বিভিন্ন ক্ষেত্রে উন্নয়ন অব্যাহত রাখার আশাবাদ ব্যক্ত করেছেন আল-আমিন সরকার চেয়ারম্যান ।

পূর্ণিমাগাঁতী ইউনিয়নের সড়ক ও যোগাযোগ ব্যবস্থায় ব্যপক গুরুত্ব দিয়ে উন্নয়ন করে যাচ্ছেন তিনি। ইতিমধ্যেই বিভিন্ন প্রকল্পে ছোট-বড় অনেক রাস্তা পাকাকরণ, মেরামত এবং নতুন রাস্তা তৈরি সহ বহুসংখ্যক ব্রীজ-কালভার্ট নির্মাণ করেছেন। রাস্তার আলোকসজ্জ্বায় স্থাপন করেছেন সৌর লাইট। এছাড়াও ইতোমধ্যেই তার হাতে সম্পন্ন হয়েছে ইউনিয়নে শতভাগ বিদ্যুতায়ন। ইউনিয়নের মসজিদ, মাদ্রাসা, মন্দির আলোকিত করার জন্য ২০০টির অধিক এলইডি বাল্ব বিতরন করেছেন।

এলজিএসপি-৩ এর অর্থায়নে এলাকার অসহায় মহিলাদের কর্মসংস্থানের জন্য ৫ শতাধিক সেলাই মেশিন বিতরন করেছেন। যা উল্লাপাড়া উপজেলায় বিরল দৃষ্টান্ত স্থাপন করেছে।তিনি নির্বাচিত হওয়ার পর থেকে আজ পর্যন্ত ইউনিয়ন পরিষদের উন্নয়ন ও জনসেবায় সরকারি, প্রশাসন ও সামাজিক বিভিন্ন সম্মাননা স্মারক পদক পেয়েছেন। তিনি জনসেবায় শ্রেষ্ঠ চেয়ারম্যান হিসেবে সম্মানান পাদক পেয়েছেন।

করোনায় জনসচেতনতায় বিশেষ অবদানে জন্য “জাতীয় কবি কাজী নজরুল ইসলাম স্মৃতি সম্মাননা-২০২১” পদক সহ সমাজসেবামূলক কাজে অবদান স্বরুপ বিভিন্ন সম্মাননা পদক অর্জন করেছেন।
সৎ ও নিষ্ঠার সাথে কাজ করায় ইতিমধ্যেই ইউনিয়নের সাধারণ মানুষের নিকট আস্থাভাজন অভিভাবক হিসেবে চেয়ারম্যান আল-আমিন সরকার বিশেষ স্থান করে নিয়েছেন। ইউনিয়নের প্রতিটি উন্নয়নমূলক কার্যক্রম সুষ্ঠভাবে সম্পাদন করতে সক্ষম হয়েছেন। সাধারণ মানুষের বিপদে-আপদে সব সময় পাশে থেকেছেন। জনগণ আগামী ইউপি নির্বাচনে আল-আমিন সরকারকে আবারও পূর্ণিমাগাঁতী ইউনিয়ন পরিষদের সুযোগ্য চেয়ারম্যান হিসেবে দেখতে চায়।

চেয়ারম্যান আল আমিন সরকার বলেন, আমি বঙ্গবন্ধুর আদর্শে আদর্শিত হয়ে আওয়ামীলীগ করি। আর আওয়ামীলীগ হিসেবে মাননীয় প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার উন্নয়নের ধারা অব্যাহত রাখতে মাঠে কাজ করে যাচ্ছি। পূর্ণিমাগাঁতী ইউনিয়নকে নিয়ে সর্বদাই উন্নয়নের স্বপ্ন দেখি। ইনশাআল্লাহ এলাকাবাসী চাইলে আসন্ন ইউনিয়ন পরিষদ নির্বাচনে পুনরায় চেয়ারম্যান নির্বাচিত হব। এলাকাবাসীর পাশে পূর্বে ছিলাম এখনও আছি ভবিষ্যতেও থাকব। “জননেতা জনাব তানভীর ইমামের সার্বিক দিক নির্দেশনা ও সর্বাতœক সহযোগীতায় ইউনিয়নের উন্নয়নমূলক কাজ সম্পন্ন করে যাচ্ছি। দেশনেত্রী শেখ হাসিনার অঙ্গিকার “গ্রাম হবে শহর” এরই ধারাবাহিকতায় আমার ইউনিয়নের প্রতিটি রাস্তা পাঁকাকরণসহ নতুন রাস্তা নির্মাণ কাজ অব্যাহত রয়েছে।

আমি বিশ্বাস করি, কোন এলাকার উন্নয়নের একমাত্র মাধ্যম হচ্ছে যাতায়াত ব্যবস্থা। যে কারনে ইউনিয়নবাসীর সার্বিক উন্নয়নে আমি যাতায়াত ব্যবস্থাকেই সর্বাধিক গুরুত্ব দিয়েছি। যে কারনে পূর্বের যে কোন সময়ের তুলনায় পূর্ণিমাগাঁতী ইউনিয়নের যাতায়াত ব্যবস্থ্যার সমধিক উন্নয়ন এখন দৃশ্যত:। আমি ইউনিয়নের গরীর, দুস্থ অসহায় মানুষের পাশে সব সময় থেকেছি আর আগামীতেও থাকব। আমি পুনরায় নির্বাচিত হলে এলাকার মেহনতি, দুস্থ ও দুঃখী মানুষের জীবন উন্নয়নের ধারা অব্যাহত রাখব।
তিনি আরো বলেন, আমি নির্বাচিত হওয়ার আগে পূর্ণিমাগাঁতী ইউনিয়ন একটি অবহেলিত ইউনিয়ন ছিলো। নির্বাচিত হওয়ার পর এম.পি তানভীর ইমামের সার্বিক দিক নির্দেশনায় ইউনিয়নের জনগণকে সাথে নিয়ে যে উন্নয়নমূলক কাজ করেছি তা আজ দৃশ্যতঃ। উন্নয়ন, সুশাসন ও বসবাসযোগ্য ইউনিয়ন হিসেবে ইউনিয়নবসীকে উপহার দিয়েছি। আগামী ইউপি নির্বাচনে আওয়ামী লীগের মনোনয়ন পেলে আমার ইউনিয়নের জনগনকে সঙ্গে নিয়েই উন্নয়ন কর্মকান্ড অব্যাহত রাখব এবং সর্বদা ইউনিয়নবাসীর সেবায় ও নিরাপত্তায় নিজেকে নিয়োজিত রাখব। আমি ইউনিয়নবাসীর কাছে দোয়া ও সমর্থন কামনা করছি। বর্তমান সরকারের উন্নয়নের এ ধারা অব্যাহত রেখে ইউনিয়নটিকে মডেল ইউনিয়নে রূপান্তর করা হবে।

এলাকাবাসীরা বলছেন পূর্ণিমাগাঁতী ইউনিয়নের জনবান্ধব ও সফল চেয়ারম্যান আল আমিন সরকার। যার আন্তরিকতা, ভালোবাসা ও নিরলস প্রচেষ্টায় ইউনিয়নের সার্বিক উন্নয়ন অব্যাহত আছে এবং আগামীতেও থাকবে বলে মনে করেন।
পূর্ণিমাগাঁতী ইউনিয়নের বর্তমান জনপ্রিয় চেয়ারম্যান আল আমিন সরকার পারিবারিক ঐতিহ্য অনুযায়ী ছোট বেলা থেকেই একজন সহজ-সরল-সৎ মনের অধিকারী দানশীল ও মেধাবী মানুষ। যার ফলে এলাকাবাসী তাকে পূর্ণিমাগাঁতী ইউনিয়নে বিপুল ভোটে চেয়ারম্যান নির্বাচিত করেছেন।

চেয়ারম্যান নির্বাচিত হয়ে আল আমিন সরকার ইউনিয়নের উন্নয়ন করে যাচ্ছেন একাধারে। সামাজিক সচেতনতা এবং মানবিক সেবার অনন্য উদ্যোগ তাকে একজন মানবদরদী ও মহতী মানুষের উচ্চতায় অধিষ্ঠিত করেছে।

তিনি এলাকার দরিদ্র জনগোষ্টির উন্নয়নে বিভিন্ন উন্নয়নমূলক কর্মসূচি বাস্তবায়ন করছেন এবং বিভিন্ন উন্নয়ন প্রকল্প হাতে নিয়েছেন। তিনি এ পর্যন্ত ইউনিয়নের বিভিন্ন রাস্তার উন্নয়নসহ স্কুল, মাদ্রাসা, কবরস্থান, মসজিদ, ঈদগাঁমাঠ সংস্কার করে গরীব দু:খী মানুষের মাঝে বয়স্কভাতা, বিধবাভাতা সঠিকভাবে বিতরণ করেছেন এবং বিভিন্ন উন্নয়ন প্রকল্প সঠিকভাবে বাস্তবায়ন করে গ্রাম্য শালিসের মাধ্যমে ইউনিয়নের বিভিন্ন সমস্যার সমাধান করে যাচ্ছেন।

এছাড়াও তিনি নির্বাচিত হওয়ার পর নিয়মিত অফিস করছেন এবং স্থানীয় প্রশাসনের সার্বিক তত্বাবদানে প্রতিটি উন্নয়নমূলক কাজ অতি দক্ষতার সাথে সফলভাবে করেছেন যা এখনও চলমান আছে।

Spread the love
  •  
  •  
  •  

নিউজটি শেয়ার করুন

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

এ বিভাগের আরও খবর
এই নিউজ পোর্টাল এর কোনো লেখা, ছবি, ভিডিও অনুমতি ছাড়া ব্যবহার সম্পূর্ণ বেআইনি ও দণ্ডনীয় অপরাধ ।  About Us | Contact Us | Terms & Conditions | Privacy Policy
Design & Developed by Freelancer Zone
themesba-lates1749691102