মঙ্গলবার, ২৮ জুন ২০২২, ০৬:০১ অপরাহ্ন

হজযাত্রী বহনে চালু হলো থার্ড ক্যারিয়ার

কলমের বার্তা ডেস্ক :
  • সময় কাল : শনিবার, ১১ জুন, ২০২২
  • ১৩ বার পড়া হয়েছে।

দীর্ঘ দাবির মুখে এই প্রথমবারের মতো হজযাত্রী বহনে চালু করা হয়েছে থার্ড ক্যারিয়ার। ফ্লাইনাস নামে সৌদি আরবের একটি এয়ারলাইন্স শুক্রবার আনুষ্ঠানিকভাবে যাত্রা শুরু করেছে। বিকেল ৩টায় ফ্লাইনাসের এক্সওয়াই-৫০২৪ ফ্লাইটটি ঢাকা থেকে হজযাত্রী নিয়ে সৌদি আরবের জেদ্দার উদ্দেশে উড়ে যায়। এতে যাত্রী ছিল ৪২০ জন। বাংলাদেশ থেকে এবারই প্রথম হজযাত্রী পরিবহন করছে এই এয়ারলাইন্সটি।

ফ্লাইনাসের উদ্বোধনী ফ্লাইটে যাত্রীদের বিদায় জানান বেসামরিক বিমান পরিবহন ও পর্যটন প্রতিমন্ত্রী মোঃ মাহবুব আলী ও ঢাকায় নিযুক্ত সৌদি আরবের রাষ্ট্রদূত ঈসা বিন ইউসুফ আল দুহাইলান। উদ্বোধনী অনুষ্ঠানে যাত্রীদের সঙ্গে কুশলবিনিময় এবং শুভেচ্ছা উপহার বিতরণ করেন বিমান প্রতিমন্ত্রী ও সৌদি আরবের রাষ্ট্রদূত। এ সময় হযরত শাহজালাল আন্তর্জাতিক বিমানবন্দরের নির্বাহী পরিচালক গ্রুপ ক্যাপ্টেন মোহাম্মদ কামরুল ইসলাম, হজ এজেন্সিজ এ্যাসোসিয়েশন অব বাংলাদেশের (হাব) সভাপতি এম শাহাদাত হোসাইন তসলিম প্রমুখ উপস্থিত ছিলেন।

ফ্লাইনাস জানিয়েছে, বাংলাদেশ থেকে হজযাত্রী পরিবহনে ৪৪৩ আসন বিশিষ্ট এয়ারবাস এ ৩৩০ নিও উড়োজাহাজ ব্যবহার করা হবে। হজযাত্রীদের সুবিধার্থে ফ্লাইটে থাকবে বাংলাদেশী কেবিন ক্রু। হজযাত্রীদের জন্য পরিবেশন করা হবে বাংলাদেশী খাবার। ফ্লাইটে দেয়া হবে ১টি ফুল মেল ও যাকস, কোমল পানীয়, জুস। হজ ক্যাম্প থেকে যাত্রীদের যাবতীয় আনুষ্ঠানিকতায় সহায়তা করতে থাকবে এয়ারলাইন্সটির কর্মীরা।

এ সময় বিমান প্রতিমন্ত্রী বলেন, হজযাত্রা নির্বিঘœ রাখতে সার্বক্ষণিক মনিটরিং করা হচ্ছে। এবার সৌদি আরবের এয়ারলাইন ফ্লাইনাস হজযাত্রী পরিবহন করছে, যাত্রী পরিবহন নিয়ে কোন ধরনের সঙ্কট থাকবে না।

এ বিষয়ে ঢাকায় নিযুক্ত সৌদি আরবের রাষ্ট্রদূত ঈসা বিন ইউসুফ আল দুহাইলান বলেন, হযরত শাহজালাল আন্তর্জাতিক বিমানবন্দরে থেকে বাংলাদেশী হজযাত্রীদের জন্য রুট টু মক্কা কার্যক্রমের কারণে হজযাত্রীর সৌদি অংশের ইমিগ্রেশনও হচ্ছে ঢাকায়। ফলে সৌদি গিয়ে বিমানবন্দরে কাউকে আর অপেক্ষা করতে হবে না।

এ বিষয়ে হজ পরিচালক সাইফুল ইসলাম জানান, ফ্লাইনাস মোট ১২টি ফ্লাইটের মাধ্যমে সাড়ে ৫ হাজার হজযাত্রী পরিবহন করবে। এতে বিমানের নিজস্ব কোটার হজযাত্রী কমবে না। মোট হজযাত্রীর অর্ধেক বহন করবে বিমান, আর অর্ধেক বহন করবে সৌদি আরবের দুই এয়ারলাইন্স।

ফ্লাইনাস সম্পর্কে জানা যায়, সৌদি আরবের নেতৃস্থানীয় এই এয়ারলাইন্সটি যাত্রা শুরু করে ২০০৭ সালে। ৩৫টি অভ্যন্তরীণ এবং আন্তর্জাতিক গন্তব্যে সপ্তাহে ১৫০০টিরও বেশি ফ্লাইট পরিচালনা করে এই এয়ারলাইন্স। ফ্লাইনাস প্রতিযোগিতামূলক ভাড়া সময়মতো ফ্লাইট পরিচালনা এবং উচ্চমানের গ্রাহক সেবার জন্য ২০১৫ থেকে ২০২০ সাল পর্যন্ত পরপর ছয় বছর ওয়ার্ল্ড ট্রাভেল এ্যাওয়ার্ডস থেকে পুরস্কার অর্জন করেছে। ২০১৭ সাল থেকে ২০২১ সাল পর্যন্ত স্কাইট্র্যাক্সেরও পুরস্কার অর্জন করে এ এয়ারলাইন। ফ্লাইনাস ১২০টি নতুন এয়ারবাস এ ৩২০ নিও উড়োজাহাজ কেনার জন্য সাম্প্রতিক সময়ে চুক্তি করেছে। ইতোমধ্যে এয়ারলাইন্সটির বহরে ২০টি এয়ারবাস এ ৩২০ নিও উড়োজাহাজসহ ৩৪টি উড়োজাহাজ রয়েছে।

হজক্যাম্প জানিয়েছে, বিমান বাংলাদেশ এয়ারলাইন্স ও সৌদি এ্যারাবিয়ান এয়ারলাইন্সের যাত্রীদের সৌদি আরব অংশের মতোই ফ্লাইনাসের যাত্রীদেরও ইমিগ্রেশন বাংলাদেশে সম্পন্ন হয়েছে।

দীর্ঘ ১০ বছর ধরে বিমান ও সৌদি এ্যারাবিয়ান এয়ারলাইন্স বাংলাদেশের হজযাত্রী বহন করে আসছে। চলতি বছরের মে মাসে বাংলাদেশের হজযাত্রী বহনের অনুমতি পায় সৌদি আরবভিত্তিক কম খরচে এয়ারলাইন্স প্রতিষ্ঠান ফ্লাইনাস। বাংলাদেশ ও সৌদি আরবের হজচুক্তি অনুযায়ী সৌদি আরবের ফ্লাইনাস ৫০ শতাংশ হজযাত্রী বহন করতে পারবে। তবে থার্ড ক্যারিয়ার চালু হলেও বিমানের হজযাত্রী কমবে না। ফ্লাইনাস ভাগ বসিয়েছে সাউদিয়া এয়ারের হজযাত্রীদের ওপর।

Spread the love

নিউজটি শেয়ার করুন

Leave a Reply

এ বিভাগের আরও খবর
এই নিউজ পোর্টাল এর কোনো লেখা, ছবি, ভিডিও অনুমতি ছাড়া ব্যবহার সম্পূর্ণ বেআইনি ও দণ্ডনীয় অপরাধ ।  About Us | Contact Us | Terms & Conditions | Privacy Policy
Design & Developed by RJ Ranzit
themesba-lates1749691102