বুধবার, ২৮ জুলাই ২০২১, ০৭:৫৫ পূর্বাহ্ন

হামলার স্বীকার সাংবাদিকের বিরুদ্ধেই মামলা, আদালতে পেলেন জামিন

মোঃ বুলবুল ইসলাম,কুড়িগ্রাম:
  • সময় কাল : বৃহস্পতিবার, ২৮ জানুয়ারী, ২০২১
  • ২৫ বার পড়া হয়েছে

কুড়িগ্রাম জেলার ফুলবাড়ী উপজেলার সাংবাদিক আমিনুল ইসলাম (৫৫) জমি-জমা সংক্রান্ত জেরে প্রতিপক্ষের হামলায় গুরুতর আহত হয়েছিলেন গত ২৩ জানুয়ারী (শনিবার)। হাসপাতালে চিকিৎসাধীন থাকা অবস্থায় বাদী পক্ষ তার বিরুদ্ধে মিথ্যা চুরি ও ডাকাতির মামলা করে। সেই মামলায় বৃস্পতিবার (২৮ জানুয়ারী) সকালে কুড়িগ্রাম চিফ জুডিশিয়াল ম্যাজিস্ট্রেট কোর্ট থেকে জামিন পেয়েছেন তিনি। জামিন পাওয়ার বিষয়টি নিশ্চিত করেছেন তার আইনজীবি এড. আহসান হাবীব নিলু। থানার মামলা এজাহার সুত্রে জানা যায়, গত ২৩ জানুয়ারী জমি-জমা বিরোধের সুত্র ধরে গুরুতর আহত হয়ে ফুলবাড়ী উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে ভর্তি হয়েছিলেন দৈনিক বাংলাদেশ প্রতিদিন পত্রিকার ফুলবাড়ি উপজেলা প্রতিনিধি সাংবাদিক আমিনুল ইসলাম। এর একদিন পরেই ২৪ জানুয়ারী (রবিবার) বিকেলে হামলাকারীর মূল আসামী মোখলেছুর রহমান গ্রেফতার হয়েছিলেন এবং অপর সহযোগি আসামীরা তার দুদিন পর আদালত থেকে জামিন পাবার পর আসামীদের বড় ভাই মুক্তিযোদ্ধা মফিজার রহমান বাদী হয়ে গত ২৬ জানুয়ারী(সোমবার) রাতে ফুলবাড়ী থানায় একটি চুরি, ডাকাতি, হত্যা চেষ্টাসহ একাধিক অভিযোগে মামলা দায়ের করেন । ঘটনার ৪ দিন পর মামলা দায়ের করার বিষয়ে জানতে চাইলে মামলার বাদী মুক্তিযোদ্ধা মফিজার রহমান জানান,”মিথ্যা অভিযোগে আমার ভাইকে পুলিশ ধরে থানায় নিয়ে গেছে, বাকিদের জামিন করানোর আইনি বিষয়ের কিছু ঝামেলা থাকার কারণে দেরী হয়েছে।” মামলার বিষয়ে ফুলবাড়ী থানার ওসি (তদন্ত সারওয়ার পারভেজ জানান, “হামলার স্বীকার সাংবাদিকের অভিযোগ পাবার পর আমরা একজন আসামীকে আটক করেছি, এরপর বাদী পক্ষ গত ২৬ তারিখ সাংবাদিকের নামে একটি মামলা করেছে, আমরা তদন্ত করে সত্যতা পেলে প্রয়োজনীয় ব্যবস্থা গ্রহন করবো।” হামলার স্বীকার সাংবাদিক আমিনুল ইসলাম জানান, “আমি সেদিন স্কুলে যাচ্ছিলাম। তারা আমার উপর অর্তকিত হামলা করে। আমি হাসপাতালে থাকা অবস্থায় আমার নামে চুরি, ডাকাতি, হত্যা চেষ্টাসহ বিভিন্ন ধারায় মিথ্যা মামলা করেছে। আমি বর্তমানে নিরাপত্তায়হীনতায় ভুগছি, এর সঠিক বিচার চাই।” হামলার স্বীকার ওই সাংবাদিক গত ২৩ জানুয়ারী থেকে ২৮ জানুয়ারী পর্যন্ত হাসপাতালে চিকিৎসাধীন অবস্থায় ছিলেন। এরপর বৃহস্পতিবার মামলার জামিন পাওয়ার পর দুপুরে তিনি কুড়িগ্রাম জেনারেল হাসপাতাল থেকে ছাড়পত্র পেয়ে বাড়ি ফিরেছেন।

Spread the love
  •  
  •  
  •  

নিউজটি শেয়ার করুন

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

এ বিভাগের আরও খবর
themesba-lates1749691102