মঙ্গলবার, ২৮ জুন ২০২২, ০১:১৩ অপরাহ্ন

৫ দফার দাবিতে সিরাজগঞ্জ জেলা বিড়ি শ্রমিকের সমাবেশ অনুষ্ঠিত

আজিজুর রহমান মুন্না, সিরাজগঞ্জ প্রতিনিধি:
  • সময় কাল : মঙ্গলবার, ২৪ মে, ২০২২
  • ৫৭ বার পড়া হয়েছে।

আগামী ২০২২-২৩ অথর্ বছরের বাজেটে বিড়ির উপর অর্পিত অগ্রিম ১০ শতাংশ আয়কর প্রত্যাহার এবং বিড়ি শ্রমিকের ন্যায্য মুজুরী প্রদান, বিড়ি শ্রমিকদের সুরক্ষা আইন প্রণয়ন, বিড়ি কারখানার লাইসেন্স প্রদান বন্ধ করা ও কাস্টমস কর্তৃপক্ষকে নকল বাজারদারের

বিরুদ্ধে আইনানুগ ব্যবস্থা গ্রহণে ৫ দফা দাবিতে
সিরাজগঞ্জ জেলা বিড়ি শ্রমিক সমাবেশ অনুষ্ঠিত হয়েছে।

মঙ্গলবার (২৪ মে) দুপুরে সিরাজগঞ্জ শহরের বাজার ষ্টেশনে পৌর মুক্ত মঞ্চে জেলা বিড়ি শ্রমিক ইউনিয়নের আয়োজনে এ সমাবেশ অনুষ্ঠিত হয়েছে। সমাবেশ শেষে সিরাজগঞ্জ জেলা প্রশাসকের মাধ্যমে মাননীয় প্রধানমন্ত্রী বরাবর স্মারকলিপি প্রদান করেন।

জেলা বিডি শ্রমিক ইউনিয়নের সভাপতি আব্দুর রাজ্জাকের সভাপতিত্বে সমাবেশে বক্তব্য রাখেন, জেলা আওয়ামীলীগের সাধারণ সম্পাদক আব্দুস সামাদ তালুকদার, জেলা বাসদের সমন্বয়ক নব কমুার, বাংলাদেশ বিড়ি শ্রমিক ফেড়ারেশনের সভাপতি এম কে বাঙ্গালী, সাধারণ সম্পাদক আব্দুর রহমান সহ প্রমুখ।

উক্ত সমাবেশে বক্তারা বলেন, বিড়ি শিল্পে সমাজের অসহায়, সুবিধা বঞ্চিত, হতদরিদ্র, বিধবাসহ হাজার হাজার শ্রমিক কাজ করে জীবিকা নির্বাহ করে। তারা এদেশের মানুষের ফুসফুস পুড়িয়ে বিদেশে হাজার হাজার কোটি টাকা পাঁচার করছে। অথচ বিদেশী বহুজাতিক কোম্পানীর ষড়যন্ত্রে দেশের প্রাচীন শ্রমঘন এ শিল্পটি ধ্বংস করা হচ্ছে। এমনকি বিড়ি শ্রমিকদের নিয়ে গবেষণার নামে তারা বহুজাতিক কোম্পানী’র সাজানো নাটকের মঞ্চায়ন করে মনগড়া ফল প্রকাশের মাধ্যমে জনমনে বিভ্রান্তি সৃষ্টি করেছে। তাদের এই ষড়যন্ত্র বন্ধ না হলে আমরা শ্রমিকদের নিয়ে দূর্বার আন্দোলন গড়ে তুলবো বলে হুশিয়ারী দেন। তারা আরও বলেন, বিদেশী সিগারেট কোম্পানীগুলোকে একচেটিয়া ব্যবসার সুযোগ করে দিতে কতিপয় অসাধু আমলা বিড়ির উপর ষড়যন্ত্রমূলক ভাবে মাত্রাতিরিক্ত করের বোঝা চাপিয়ে দিচ্ছে। কর্মসংস্থান না থাকাই পরিবার নিয়ে অনাহারে, অর্ধাহারে দিনাতিপাত করছে।

Spread the love

নিউজটি শেয়ার করুন

Leave a Reply

এ বিভাগের আরও খবর
এই নিউজ পোর্টাল এর কোনো লেখা, ছবি, ভিডিও অনুমতি ছাড়া ব্যবহার সম্পূর্ণ বেআইনি ও দণ্ডনীয় অপরাধ ।  About Us | Contact Us | Terms & Conditions | Privacy Policy
Design & Developed by RJ Ranzit
themesba-lates1749691102