শিরোনামঃ
মোদির সঙ্গে বৈঠকে ভবিষ্যৎ সম্পর্কের রূপরেখা ঘোষণা বাণিজ্য বাধা দূর করার আহ্বান প্রধানমন্ত্রীর সব বাড়ির মালিককে করের আওতায় আনতে নতুন পরিকল্পনা রেমিট্যান্সে ভর করে বাড়ল রিজার্ভ হাঁড়িভাঙা আম ও সবজি সংরক্ষণে দেশের প্রথম বিশেষায়িত হিমাগার হবে মিঠাপুকুরে ঢাকার সঙ্গে প্রতিরক্ষা ও নিরাপত্তা চুক্তিতে আগ্রহী রোম। সৌদিপ্রবাসীদের বৈধ পথে রেমিট্যান্স পাঠানোর আহ্বান পররাষ্ট্রমন্ত্রীর আওয়ামী লীগের নেতৃত্বে বাংলাদেশের সব অর্জন বদলে যাচ্ছে বিসিএস পরীক্ষা সলঙ্গায় মরহুম সেরাজুল ইসলাম ও আবু বক্কার চেয়ারম্যানের স্মৃতি স্বরণে ফুটবল টুর্নামেন্ট সলঙ্গার ধুবিল মেহমানশাহী উচ্চ বিদয়ালয়ে পরিক্ষার আগেই অর্থ বানিজ্যের অভিযোগ বিয়ে বাড়িতে উচ্চ আওয়াজে বক্স বাজাকে কেন্দ্র করে আহত-১০ বেনাপোলে ঈদের ছুটিতে ভারত ভ্রমণ, ফেরায় স্থল বন্দরে যাত্রীদের চাপ গরিবের বিচার নেই-গরিবের বিচার ভগবানই করবে! উল্লাপাড়ায় কৃষি মেলার উদ্বোধন সিলেট-সুনামগঞ্জে বন্যাদুর্গতদের পাশে আনসাররা কৃষিতে বকেয়া ভর্তুকি : ১০ হাজার কোটির বন্ড ইস্যু করছে সরকার ঈদকে ঘিরে রেমিট্যান্স বেড়েছে দেশে শেখ হাসিনার দিল্লি সফরের তিন প্রধান কারণ শার্শায় ট্রাকের ধাক্কায় ভ্যানচালক নিহত

তথ্যপ্রযুক্তি খাতে করারোপ হচ্ছে না

Kolomer Batra / ২২ বার পড়া হয়েছে।
সময় কাল : মঙ্গলবার, ২১ মে, ২০২৪

আগামী বাজেটে তথ্যপ্রযুক্তি খাতে করারোপ হচ্ছে না বলে জানিয়েছেন প্রধানমন্ত্রীর বেসরকারি শিল্প ও বিনিয়োগ বিষয়ক উপদেষ্টা সালমান এফ রহমান।

সোমবার (২০ মে) রাজধানীর এক পাঁচ তারকা হোটেলে বাংলাদেশ অ্যাসোসিয়েশন অব সফটওয়্যার অ্যান্ড ইনফরমেশন সার্ভিসেসের (বেসিস) ২০২৪-২৬ মেয়াদের নবনির্বাচিত কার্যনির্বাহী কমিটির অভিষেক অনুষ্ঠানে এসব কথা বলেন তিনি।

তিনি বলেন, আগামী বাজেটেও কর অব্যাহতি সুবিধা বহাল থাকবে, তবে এবারের বাজেট ঘোষণায়, কোন অর্থবছর থেকে এ খাতে কর বসবে তা স্পষ্টভাবে ঘোষণা দেয়া হতে পারে।

ডিজিটাল থেকে স্মার্ট বাংলাদেশ বিনির্মাণে ২০১১ সাল থেকে তথ্যপ্রযুক্তি খাতের ২৭টি ডিজিটাল সেবায় কর অব্যাহতি সুবিধা দিয়ে আসছে সরকার। এই অর্থবছরে ১৩ বছর ধরে চলা কর ছাড়ের সুবিধা শেষ হচ্ছে কিনা তা নিয়ে একটি দোলাচাল চলছিল। তবে শেষ পর্যন্ত এ বিষয়ে সুনির্দিষ্ট মতামত দিলেন প্রধানমন্ত্রীর বেসরকারি শিল্প ও বিনিয়োগ বিষয়ক উপদেষ্টা।

তিনি আরো বলেন, ‘প্রধানমন্ত্রী বলেছেন, সরকারতো এইখাতে সারাজীবন কর অব্যাহতি দিতে পারে না। সেখানে আমি তাকে বলেছি, হঠাৎ করে এভাবে এই সুবিধা উঠিয়ে নিলে ব্যবসায়ীদের সংকটের মধ্যে পড়তে হবে। তার চেয়ে ঘোষণা দিয়ে কবে থেকে এই কর ধার্য করা হতে পারে সেটা আমরা জানিয়ে দিতে পারি। পর্যায়ক্রমে এই খাতের ট্যাক্স বাড়ানো যেতে পারে।’

তিনি আরো বলেন, কর অব্যাহতি অনেক ছোট সমস্যা। ইনোভেশনে আমাদের ব্যবসায়ীদের আরো মনোযোগ দেয়া উচিত। পাশাপাশি, আমাদের এই খাতের উন্নয়নে কি কি পলিসি ও সহযোগিতা সরকারের পক্ষ থেকে দেয়া যেতে পারে তা নিয়ে ভাবতে হবে। সে জায়গায় সরকার সহায়তা দিতে পুরোপুরি প্রস্তুত।

সালমান এফ রহমান বলেন, গার্মেন্টস খাত যে রাস্তায় হেঁটেছে, সফটওয়্যার ও প্রযুক্তিখাতও সেই রাস্তা ধরে হাঁটছে। আমাদের আন্তর্জাতিক বাজারে আরও বড় মার্কেট ধরার মতো সক্ষমতা আছে। তবে সেই ব্যাপারে যথেষ্ট সচেতন নই আমরা। এই খাতগুলোর অনেক প্রতিবন্ধকতা সফলভাবে পার হলেও, খাতের সুদূরপ্রসারী উন্নয়নে পরবর্তী ধাপগুলো চিন্তা করা প্রয়োজন।

এছাড়াও অনুষ্ঠানে আরো উপস্থিত ছিলেন ডাক, টেলিযোগাযোগ ও তথ্য প্রযুক্তি প্রতিমন্ত্রী জুনাইদ আহমেদ পলক, বাণিজ্য প্রতিমন্ত্রী আহসানুল ইসলাম টিটু, বাংলাদেশ শিল্প ও বণিক সমিতি ফেডারেশনের (এফবিসিসিআই) সভাপতি মাহবুবুল আলম, বাংলাদেশ অ্যাসোসিয়েশন অব সফটওয়্যার অ্যান্ড ইনফরমেশন সার্ভিসেসের (বেসিস) সভাপতি রাসেল টি আহমেদ, বেসিসের সদস্যরাসহ, খাত সংশ্লিষ্ট ব্যবসায়ীরা।

30


আপনার মতামত লিখুন :

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

এই বিভাগের আরো খবর