• সোমবার, ২৬ ফেব্রুয়ারী ২০২৪, ১১:৪০ অপরাহ্ন
শিরোনামঃ
ভাঙ্গুড়ায় জাতীয় প্রাথমিক শিক্ষা পদক প্রতিযোগিতা অনুষ্টিত আগামী চার মাসে প্রাথমিকে নিয়োগ হবে ১০ হাজার শিক্ষক স্মার্ট বাংলাদেশ বিনির্মাণে সরকার সঠিক পথেই এগিয়ে যাচ্ছে বাংলাদেশের অর্থনৈতিক প্রবৃদ্ধি ও উন্নয়ন অনেক দেশের অনুপ্রেরণা ২৪ দিনে দেশে রেমিট্যান্স এলো ১৮ হাজার কোটি টাকা বস্ত্রখাতে বিশেষ অবদান, সম্মাননা পাচ্ছে ১১ সংগঠন ও প্রতিষ্ঠান সম্পর্কের নতুন অধ্যায় শুরু করতে আগ্রহী বাংলাদেশ-যুক্তরাষ্ট্র সংরক্ষিত ৫০ নারী আসনে সবাই বিনা প্রতিদ্বন্দ্বিতায় জয়ী সম্মানী ভাতা বাড়ল কাউন্সিলরদের ‘শেখ হাসিনার বাংলাদেশে প্রাণিজ প্রোটিনের অভাব হবে না’ বঙ্গবন্ধুর সমাধিতে জাতীয় ও আগরতলা প্রেসক্লাবের নেতাদের শ্রদ্ধা সিরবজগঞ্জে চালক-হেলপার হত্যা,মৃত্যুদন্ড পলাতক আসামি গ্রেফতার সিরাজগঞ্জে জেলা পর্যায়ে প্র‌শিক্ষণ প্রাপ্ত ইমাম সম্মেলন অনুষ্ঠিত সিরাজগঞ্জে কৈশোর মেলা অনুষ্ঠিত গাজীপুরে পূর্ব বিরোধের জেরে যুবক খুন সলঙ্গায় যুবককে কুপিয়ে ইজিবাইক ছিনতাই, ৩৬ ঘন্টা পর উদ্ধার আটক ১ নারী এমপিরা সংসদে যোগ দিচ্ছেন চলতি অধিবেশনেই টোলের আওতায় আসছে দেশের সাত মহাসড়ক আলোচনায় মন্ত্রিসভা সম্প্রসারণ পর্যটক টানতে কুয়াকাটায় হচ্ছে বিমানবন্দর

আব্দুল আজিজ ভাঙ্গুড়া (পাবনা) প্রতিনিধিঃ

জলমহাল ইজারা দিতে পক্ষপাতিত্বের অভিযোগ

কলমের বার্তা / ৩৪ বার পড়া হয়েছে।
সময় কাল : শনিবার, ২ ডিসেম্বর, ২০২৩

জলমহাল নীতিমালা লঙ্ঘন করে পাবনার ভাঙ্গুড়ায় উপজেলার পার-ভাঙ্গুড়া ইউনিয়নের হাট গ্রাম মৌজার রুহুল বিলের জলমহল ইজারা পাইয়ে দিতে কারসাজি চলছে বলে অভিযোগ পাওয়া গেছে।

এ নিয়ে মধুরগাতি পূর্ব পাড়া মৎস্যজীবী সমিতির সভাপতি মোঃ আকরাম হোসেন গত ২৬ নভেম্বর জেলা প্রশাসক বরাবর লিখিত অভিযোগ দিলেও কোনো প্রতিকার মিলছে না।

লিখিত অভিযোগে উল্লেখ করা হয়েছে ভাঙ্গুড়া উপজেলার পার-ভাঙ্গুড়া ইউনিয়নের হাট গ্রামে মৌজায় অবস্থিত রুহুল বিল জলমহাল। এর আয়তন ৭৯ একর ৯৬ শতক। দীর্ঘদিন ধরে জলমহালটি দক্ষিণ পাটুলী পাড়া গ্রাম্য মৎস্যজীবী সমবায় সমিতি ইজারা নিয়ে মাছ চাষ করে আসছে। কিন্তু এ বছরের ৯ নভেম্বর জলমহাল নীতিমালা লঙ্ঘন করে দক্ষিণ পাটুলী পাড়া গ্রাম্য মৎস্যজীবী সমবায় সমিতিকে জলমহালটি ইজারা নিতে চেষ্টা চালিয়ে যাচ্ছে ।

মধুরগাতি পূর্ব পাড়া মৎস্যজীবী সমবায় সমিতির সদস্যরা প্রকৃত মৎসজীবি এবং উক্ত জলমহলের নিকটবর্তী। ২০০৯ সালের জলমহাল নীতিমালা অনুযায়ী ইজারা দেওয়ার ক্ষেত্রে জলমহালের নিকটবর্তী মৎস্যজীবী সমবায় সমিতিকে অগ্রাধিকার দিতে হবে। দক্ষিণ পাটুলী পাড়া গ্রাম্য মৎস্যজীবী সমবায় সমিতির আবেদন কিছু ভূয়া তথ্য সংযোজন করেছেন এর মধ্যে রয়েছে আবেদনে প্রকৃত মৎসজীবি উল্লেখ করে উপজেলা মৎস্য কর্মকর্তার প্রত্যয়নপত্র সংযুক্ত করার বিধান থাকলেও উক্ত সমিতির সদস্যগণ প্রকৃত মৎসজীবি মর্মে প্রত্যয়ন দেওয়া হয়নি ,প্রত্যয়নে ০১ হতে ২৩ পর্যন্ত ক্রমিকে উল্লেখিত ব্যক্তিগণ জেলে নিবন্ধন পরিচয়পত্র প্রদান কমিটির সুপারিশে মৎস্য অধিদপ্তর কর্তৃক নিবন্ধিত মৎস্যজীবী ঔ প্রত্যয়নে কোন সমবায় সমিতির নাম উল্লেখ নাই। ২৩ জেলের কার্ড দেখানো হয়েছে এর মধ্যে ৫ জনের তালিকায় নামই নাই,বাকি ৬,৭,১৪,২০, ও ৩৭ নং সদস্যগণ দক্ষিণ পাটুলী পাড়া গ্রাম্য মৎস্যজীবীর সদস্যই নয়।অডিট রিপোর্টে মৎস্য প্রত্যয়নপত্রে ১০ ও ৩২ নং একই ব্যক্তি,১০ নং ব্যক্তিকে কার্ডধারী দেখানো হয়েছে এবং ৩২ নং একই ব্যক্তিইকে মৃত দেখানো হয়েছে, উক্ত সমিতির কার্যবিবরনীতে ব্যবস্হাপনা কমিটির সদস্য মোঃ ইসমাইল হোসেন মৃত হলেও কার্যবিবরনীতে জাল স্বাক্ষর করা হয়েছে , সমিতির ২০২২-২০২৩ অডিট রিপোর্টে ৩৭ জন সদস্যের মধ্যে ৭ জন সদস্য মৃত হলেও তাদের সমিতি থেকে বাদ দেওয়া হয়নি,ভূলে ভরা আবেদন প্রমান করার পড়েও দক্ষিণ পাটুলী পাড়া গ্রাম্য মৎস্যজীবী সমিতিকে উন্নয়ন প্রকল্প অনুমোদন করতে সংশ্লিষ্ট কর্মকর্তাদের চলছে কারসাজি।
এ বিষয়ে তদন্ত কমিটির উপজেলা সমবায় কর্মকর্তা মোঃ মজিবুর রহমান বলেন তদন্ত চলমান এখন কিছু বলতে পারছি না।

46
Spread the love


আপনার মতামত লিখুন :

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

এই বিভাগের আরো খবর