শিরোনামঃ
আশা জাগাচ্ছে বায়ুবিদ্যুৎ ডিসেম্বরে ঘুরবে ট্রেনের চাকা মূল্যস্ফীতি হ্রাসে ব্যাংক থেকে ঋণ কমাতে চায় সরকার বদলে যাবে হাওরের কৃষি বাংলাদেশে নতুন জলবায়ু স্মার্ট প্রাণিসম্পদ প্রকল্প চালু যুক্তরাষ্ট্রের ‘তথ্য দেওয়ার জন্য বাংলাদেশ ব্যাংকে ৩ জন মুখপাত্র নিয়োগ দেওয়া হয়েছে’ অস্বস্তি কাটিয়ে যুক্তরাষ্ট্র-বাংলাদেশ সম্পর্কে নতুন মোড় এমপিদের শুল্কমুক্ত গাড়ি আমদানি সুবিধা উঠে যাচ্ছে ভূমি অধিগ্রহণ জটিলতা দূর ৫০০ একর খাসজমি বরাদ্দ স্বাধীনতাবিরোধীদের পদচিহ্নও থাকবে না: রাষ্ট্রপতি আজ জাতীয় এসএমই পণ্য মেলা উদ্বোধন করবেন প্রধানমন্ত্রী দশতলা বিল্ডিং এর ছাদ থেকে লাফ দিয়ে নারী পোশাক শ্রমিকের মৃত্যু বাগবাটি রাজিবপুর অটিস্টিক ও বুদ্ধি প্রতিবন্ধী স্কুলে হুইল চেয়ার বিতরণ সিরাজগঞ্জ পৌরকর্মচারী ইউনিয়নের দ্বি-বার্ষিক নির্বাচন অনুষ্ঠিত  কাজিপুর খাদ্য গুদামে অভ্যন্তরীণ বোরো -ধান চাউল সংগ্রহ এর উদ্বোধন আদিতমারীতে ধান-চাল ক্রয়ের আনুষ্ঠানিক উদ্বোধন ঠাকুরগাঁওয়ে শিশু নিবির হত্যা মামলায় গ্রেফতার আরেক শিশু বেনাপোল সীমান্তের চোরা পথে ভারতে যাবার সময় মিয়ানমার নাগরিকসহ আটক-৪ বিয়েতে রাজি না হওয়ায় আত্নহত্যা, প্রতিপক্ষকে ফাঁসাতে হত্যা মামলা সিরাজগঞ্জে সাংবিধানিক ও আইনগত অধিকার বিষয়ক কর্মশালা অনুষ্ঠিত

এনামুল হক বাদশা (সিংড়া) নাটোর প্রতিনিধিঃ

চাঁদাবাজির মামলায় সিংড়া পৌর কাউন্সিলর মিজানুর গ্রেপ্তার

কলমের বার্তা / ৩৮৮ বার পড়া হয়েছে।
সময় কাল : বুধবার, ৮ জুন, ২০২২

চাঁদাবাজির অভিযোগে দায়ের করা মামলায় নাটোরের সিংড়া পৌরসভার কাউন্সিলর ও যুবলীগ নেতা মিজানুর রহমানকে গ্রেপ্তার করে কারাগারে পাঠানো হয়েছে। মঙ্গলবার (৭জুন) বিকেলে সিংড়া থানার পুলিশ উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সের আবাসিক চিকিৎসক কর্মকর্তা মইনুল হকের মা রাহেলা বেগমের দায়ের করা মামলায় তাঁকে গ্রেপ্তার করা হয়েছে।

মিজানুর রহমান সিংড়া পৌরসভার উত্তর দমদমা সর্দার পাড়ার মুক্তাদুর রহমানের ছেলে ও সিংড়া পৌরসভার ২নং প্যানেল মেয়র। তাঁর স্ত্রীর দাবি, মামলার বাদির চিকিৎসক ছেলের একটি অনৈতিক ঘটনার শালিস করার কারণে তাঁর স্বামীকে মিথ্যা মামলায় ফাঁসানো হয়েছে।

সিংড়া থানা সূত্রে জানা যায়, উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সের আবাসিক চিকিৎসক কর্মকর্তা মইনুল হকের মা রাহেলা বেগম বাদি হয়ে চাঁদাবাজির অভিযোগে কাউন্সিলর মিজানুর রহমানের বিরুদ্ধে সিংড়া আমলী আদালতে মামলা করেন। আদালতের নির্দেশে পুলিশ ব্যুরো অব ইনভেস্টিগেশন (পিবিআই) মামলাটি তদন্ত করে। তদন্ত শেষে অভিযোগের সত্যতা আছে বলে প্রতিবেদন দেন তদন্ত কর্মকর্তা। প্রতিবেদন পর্যালোচনা করে আদালতের বিচারক সিনিয়র জুডিসিয়াল ম্যাজিস্ট্রেট মো.আবু সাঈদ আসামির বিরুদ্ধে গ্রেপ্তারী পরোয়ানা দেন। সেই গ্রেপ্তারী পরোয়ানা বলে সিংড়া থানার পুলিশ কাউন্সিলর মিজানুর রহমানকে গ্রেপ্তার করে আদালতে পাঠায়। আসামি পক্ষের আইনজীবী জামিনের আবেদন করলে আদালত তা নামঞ্জুর করেন এবং আসামিকে কারাগারে পাঠানোর নির্দেশ দেন।

এদিকে মিজানুর রহমানের স্ত্রী নিলুফা বেগমের দাবি, ২০২০ সালে সিংড়া উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সের আবাসিক চিকিৎসক কর্মকর্তা মইনুল হক ও এক নারীকে আপত্তিকর অবস্থায় আটক করেন স্থানীয় লোকজন। তখন কাউন্সিলর হিসেবে মিজানুর রহমান তাৎক্ষণিক শালিসী বৈঠক করে তাঁদের বিয়ে দিয়ে দেন। পরে ওই চিকিৎসক বিয়ে অস্বীকার করলে ওই নারী চিকিৎসকের বিরুদ্ধে আদালতে ধর্ষণের মামলা করেন। এই মামলাটিও পিবিআই তদন্ত করে। তদন্ত শেষে ঘটনার সত্যতা আছে বলে আদালতে প্রতিবেদন দাখিল করে। এই ঘটনার আক্রোশে মিজানুর রহমানকে মিথ্যা মামলায় ফাঁসানো হয়েছে। তিনি আরও বলেন, তাঁর স্বামী সিংড়া পৌর আওয়ামী যুবলীগের সাংগঠনিক সম্পাদক। তাঁর রাজনৈতিক ও সামাজিক মর্যাদা ক্ষুন্ন করার জন্যই তাঁর বিরুদ্ধে মিথ্যা মামলা করা হয়েছে।

সিংড়া থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) নূর-এ-আলম সিদ্দিকী বলেন, আদালতের পরোয়ানা বলে কাউন্সিলর মিজানুর রহমানকে গ্রেপ্তার করে আদালতে পাঠানো হয়েছে। মামলার বিষয়টি আদালতে বিচারাধীন আছে।

100


আপনার মতামত লিখুন :

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

এই বিভাগের আরো খবর