শুক্রবার, ১৯ অগাস্ট ২০২২, ১১:২৫ অপরাহ্ন
শিরোনাম :
সিংড়ায় মোটরসাইকেল থেকে পড়ে বিএনপি নেতার স্ত্রী’র মৃত্যু জাতীয় শোক দিবস উপলক্ষে দৌলতপুরে আলোচনা সভা ও দোয়ার মাহফিল অনুষ্ঠিত ভাঙ্গুড়ায় যথাযোগ্য মর্যাদায় শ্রী কৃষ্ণের জন্মাষ্টমী পালিত বেড়ায় একতা বন্ধু উন্নয়ন ফাউন্ডেশনের উদ্যোগে বিনামূল্যে চিকিৎসা সেবা প্রদান সিংড়ায় স্বেচ্ছাসেবক দলের প্রতিষ্ঠাবার্ষিকী পালিত সিরাজগঞ্জে নানা আয়োজনে ভগবান শ্রীকৃষ্ণের জন্মাষ্টমী পালন করেছে সনাতন ধর্মাবলম্বীরা কোনাবাড়ীতে আসছেন মাওলানা  হাফিজুর রহমান  সিদ্দিকী  শাহজাদপুরে জন্মাষ্টমী উৎসব পালিত সেচ্ছাসেবক দলের ৪২তম প্রতিষ্ঠা বার্ষিকী উপলক্ষে পাবনার ঈশ্বরদীতে বর্ণাঢ্য র‌্যালী ও সমাবেশ নিজেদের সংখ্যালঘু না ভেবে দেশের নাগরিক ভাবুন : প্রধানমন্ত্রী

ভালুকায় চলছে অবৈধ সিসা কারখানা

সারুয়ার হাসান,ভালুকা প্রতিনিধি:
  • সময় কাল : শুক্রবার, ২৪ জুন, ২০২২
  • ৪৮ বার পড়া হয়েছে।

ময়মনসিংহের ভালুকা উপজেলার কাদিরগড় বিটের অধীনে আব্দুর রশিদ নামে এক প্রভাবশালী ব্যক্তি বেশ কিছুদিন আগে বনভূমি জবরদখল করে ফ্যাক্টরির সীমানা প্রাচীর নির্মাণ শুরু করলে তা ভেঙে গুঁড়িয়ে দেয় বনবিভাগ। কিন্তু দুই মাস পর রহস্যজনকভাবে পুনরায় প্রাচীরটি নির্মাণ করা হয়েছে।

বনবিভাগ ও স্থানীয় সূত্রে জানা যায়, ভালুকা রেঞ্জের কাদিগড় বিটের অধীনে পারাগাঁও মৌজার আউলাতলী গ্রামে হবিরবাড়ি গ্রামের আবদুর রশিদ এপ্রিল মাসে বনবিজ্ঞপ্তি বনভূমি জবরদখল করে ফ্যাক্টরির সীমানাপ্রাচীর নির্মাণ শুরু করেন। খবর পেয়ে ৯ এপ্রিল সকালে ভালুকা রেঞ্জ কর্মকর্তা রইচ উদ্দিন আহমেদের নেতৃত্বে কাদিগড় বিট কর্মকর্তা ফিরোজ আল আমিন, হবিরবাড়ি বিট কর্মকর্তা আবুল হাসেম চৌধুরী ও তাদের স্টাফরা প্রাচীরটি ভেঙে গুঁড়িয়ে দেন এবং নির্মাণ কাজে ব্যবহৃত সরঞ্জামাদি জব্দ করেন।

এলাকাবাসী জানায়, কেউ বনবিভাগের জমি দখল করে স্থাপনা নির্মাণ শুরু করলে বনবিভাগের লোকজন লোক দেখানো অভিযান চালিয়ে সামান্য অংশ ভেঙে দেয়। পরে দখলকারীরা আবারো বনবিভাগের সাথে যোগাযোগ করেই রহস্যজনকভাবে কাজ করে ফেলে। তেমনি আউলাতলী গ্রামে অবস্থিত সীসা ফ্যাক্টরির সীমানাপ্রাচীরও নির্মাণ করার সময় বনবিভাগের লোকজন সামান্য ভেঙে দেয়। কিন্তু দুই মাসের মাথায় প্রাচীরটির চারপাশে টিনের বেড়া দিয়ে নির্মাণ কাজটি করে ফেলা হয়। এ ব্যাপারে অভিযুক্ত আবদুর রশিদের ভাই আবদুর রাজ্জাকের মোবাইলে ফোন দিলে তিনি বলেন সাংবাদিকের কাজ নিউজ করা করেন বেশি করে নিউজ করেন।

হবিরবাড়ী ইউনিয়ন পরিষদের চেয়ারম্যান তোফায়েল আহাম্মেদ বাচ্চু বলেন, সিসা ফ্যাক্টুরির জন্য আমার কাজ থেকে কোন ট্রেড লাইসেন্স নেইনি, আর আমার ইউনিয়নের আওলাতলী গ্রাম একটি কৃষি বান্ধব এলাকা এখানে পরিবেশ নষ্ট করে এমন ফ্যাক্টুরীর অনুমোদন প্রশ্নই আসেনা। তারা যা করছে সব অবৈধ ভাবে।

উপজেলা প্রাণী সম্পদ কর্মকর্তা ডাঃ মতিউর রহমান জানান , সিসা কারখানা অবশ্যই ক্ষতিকর এটা তৈরি হলে পশু পাখির ব্যাপক ক্ষয় ক্ষতি হবে, পরিবেশের ভারসাম্য নষ্ট হবে। জনবহুল এলাকায় এ ধরনের কারখানা গড়ে উঠলে মানুষ বিভিন্ন রোগে আক্রান্ত হবে।

নাম প্রকাশে অনিচ্ছুক একজন শিক্ষক বলেন, যেখানে মাননীয় প্রধানমন্ত্রী নিষেধ করেছেন যে কৃষি জমি নষ্ট করা যাবেনা সেখানে আব্দুর রশিদ কি করে ফসলের জমির পাশে অবৈধ সিসা কারখানার জন্য জমি লিজ দেয়। আমরা এর প্রতিকার চাই।

ভালুকা রেঞ্জ কর্মকর্তা রইচ উদ্দিন আহমেদ বলেন, দুই মাস আগে সীমানাপ্রাচীর নির্মাণ শুরু করলে আমরা তা ভেঙে গুঁড়িয়ে দিয়ে নির্মাণ সরঞ্জামাদি নিয়ে আসি এবং এ ব্যাপারে মামলা দেয়া হয়েছে। পরে ওই পক্ষ আদালতে একটি স্থিতাবস্থার মামলা করে। আমরা এটি আইনি প্রক্রিয়ায় ভাঙার চেষ্টা করছি।

ওয়ান শিসাং ইন্ডাস্ট্রি লিমিটেড এর ম্যানেজার আহমেদ হাসান বলেন, আমরা আব্দুর রশিদের কাজ থেকে জমি লিজ নিয়ে এটা করছি, এখানে সিসা রিসাইকেল করা হবে। আমরা এখনো পরিবেশ অধিদপ্তরের অনুমতি পাইনি।

Spread the love

নিউজটি শেয়ার করুন

Leave a Reply

Your email address will not be published.

এ বিভাগের আরও খবর
এই নিউজ পোর্টাল এর কোনো লেখা, ছবি, ভিডিও অনুমতি ছাড়া ব্যবহার সম্পূর্ণ বেআইনি ও দণ্ডনীয় অপরাধ ।  About Us | Contact Us | Terms & Conditions | Privacy Policy
Design & Developed by RJ Ranzit
themesba-lates1749691102